অনলাইন পঠনপাঠনে বাতিল হবে শিক্ষার্থী ভিসা, ঘোষণা তুলে নিল মার্কিন প্রশাসন

বিশ্বাস Tamalika Basu ১৫-জুলাই-২০২০
Photo by Library of Congress on Unsplash
Fotoğraf: Library of Congress-Unsplash

যুক্তরাষ্ট্রে অধ্যয়নরত বিদেশি শিক্ষার্থীদের শুধু অনলাইন ক্লাস করলে সে দেশ ছাড়তে হবে বলে যে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল তা বাতিল করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। ফলে বিদেশি শিক্ষার্থীদের আর যুক্তরাষ্ট্র ছাড়তে হচ্ছে না। মঙ্গলবার দেশটির একজন ফেডারেল বিচারক এই তথ্য জানান। খবর সিএনএন।

গত ৬ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট ঘোষণা দেয়, ‘করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে অধ্যয়নরত বিদেশি শিক্ষার্থীরা শুধু অনলাইন ক্লাস করতে পারবেন না। শুধু অনলাইন ক্লাস করতে চাইলে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়তে হবে অথবা বিশ্ববিদ্যালয় পাল্টাতে হবে।’

ওই আদেশের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি)। এতে দেশটির দুই শতাধিক ইউনিভার্সিটি সমর্থন জানায়। এছাড়া এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্য মামলা করেছে। এতে সমর্থন জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ১৬টি রাজ্যের ডেমোক্র্যাট সমর্থিত অ্যাটর্নি জেনারেলরাও।

এরই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার ম্যাসাচুসেটসে ডিস্ট্রিক্ট জাজ অ্যালিসন বুরোফ জানান, ‘যুক্তরাষ্ট্র সরকার, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি এবং ম্যাসাচুসেটস ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির মধ্যকার মামলায় সমঝোতা হয়েছে। ট্রাম্প সরকার নতুন আইন বাতিল ও আগের অবস্থায় ফিরে যাবে।’

তবে এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করেনি হোয়াইট হাউজ। বিষয়টির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, প্রস্তাবটির ফলে নেতিবাচক প্রভাবের কথা অনুধাবন করতে পেরেছে হোয়াইট হাউস এবং ওয়েস্ট উইংয়ের অনেকেই আগের সিদ্ধান্তটি সুবিবেচনা প্রসূত নয় বলে মনে করেন এবং বাস্তবায়ন নিয়ে সন্দিহান ছিলেন।

এই সিদ্ধান্তের ফলে দেশটিতে অধ্যয়নরত ১০ লাখের বেশি বিদেশি শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসবে। গত সপ্তাহের ওই সিদ্ধান্তে শিক্ষার্থীরা হতাশা প্রকাশ করেছিলেন। কারণ বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ তাদের কোর্সগুলো অনলাইনে পরিচালনার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছিল।