অ্যামাজনে আদিবাসীরা তীর মেরে হত্যা করলো ব্রাজিলের কর্মকর্তাকে

বিশ্ব Tamalika Basu ১১-সেপ্টে.-২০২০

অধিকারকর্মী ও ব্রাজিল সরকারের একজন কর্মকর্তা রাইলি ফ্রাঁসিকাটো’কে তীর মেরে হত্যা করেছে আদিবাসীরা। অ্যামাজন জঙ্গলের একটি আদিবাসী গোত্রের যোদ্ধারা তাকে হত্যা করে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডয়েচে ভ্যালে। বৃহস্পতিবার তিনি অ্যামাজন রেইনফরেস্টের কাউতারিও নদী থেকে বিচ্ছিন্ন এই গ্রুপের ওপর নজরদারি বা অনুসন্ধান করছিলেন। এমন সময় তাকে তীর মারা হয়েছে। তিনি এবং মিলিটারি পুলিশের একজন টহল বিষয়ক সদস্য বলিভিয়া সীমান্তের কাছাকাছি ওই আদিবাসী গ্রুপটির খুব কাছাকাছি চলে গিয়েছিলেন। এ সময় তাদেরকে সংঘবদ্ধ হয়ে আদিবাসীরা টার্গেট করে। বাধ্য হয়ে তারা একটি গাড়ির পিছনে আশ্রয় নেয়ার চেষ্টা করেন।

কিন্তু ততক্ষণে ৫৬ বছর বয়সী রাইলি ফ্রাঁসিকাটো হৃদপিন্ডে তীর বিদ্ধ হয়। এতে তিনি আর্তনাদ করতে থাকেন। নিজেই বুকে বিদ্ধ তীর টেনে খুলে ফেলেন। এ অবস্থায় দৌড়ান ৫০ মিটারের মতো। তারপর নিস্তেজ হয়ে ঢলে পড়েন।
উল্লেখ্য, ব্রাজিল সরকারের আদিবাসী বিষয়ক এজেন্সি ফুনাই-এ কাজ করতেন নিহত রাইলি ফ্রাঁসিকাটো। যেসব আদিবাসী গোত্রের সঙ্গে বাকি বিশ্বের যোগাযোগ নেই বা যাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ স্থাপন করা যায়নি স্থানীয়ভাবে তাদের জন্য অভয়াশ্রম স্থাপন করার জন্য চেষ্টা করে এই এজেন্সি। সারাদেশে তিনি ছিলেন এ বিষয়ে একজন শীর্ষ স্থানীয় বিশেষজ্ঞ।
স্থানীয় ফটোসাংবাদিক গাব্রিয়েল উচিদা বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, যে আদিবাসী গোত্র রাইলি ফ্রাঁসিকাটো’কে তীর মেরেছে তারা খুব শান্ত বলে পরিচিত। সর্বশেষ তারা ওই অঞ্চলে গিয়েছিলেন জুনে। সেখানে বসবাস করে আদিবাসীদের বিশাল একটি গ্রুপ। তবে তারা অনেক শান্ত। তবে অ্যামাজন জঙ্গলে বসবাস করা আদিবাসীরা মাঝে মধ্যে সহিংস হয়ে ওঠে। পশু শিকারে যাওয়া মানুষ, অবৈধভাবে খনিজ আহরণ, কাঠ কাঠার জন্য কেউ তাদের এলাকায় প্রবেশ করলে প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে ওঠে।