আপনার সন্তান কি বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো? কী করবেন জেনে নিন (দ্বিতীয় পর্ব)

শিশু Contributor
জ্ঞান-বিজ্ঞান
বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো
Photo : Dreamstime

১ম পর্বের পর

আপনার সন্তান বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হলে তার বৃদ্ধির হার কেমন হওয়া উচিত, কখনই বা একজন শিশুকে বেঁটে বলা চলে, এই নিয়ে আগের পর্বেই বিশদে আলোচনা করেছি। কিন্তু কোন-কোন কারণে সে বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হতে পারে, আজ সে সম্পর্কে জানব।

আপনার শিশুর বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হওয়ার কারণগুলি

এর মধ্যে রয়েছে—

  • পারিবারিক দিক থেকে খাটো গড়ন
  • বৃদ্ধির ক্ষেত্রে দেরি (এক্ষেত্রে শিশু ছোটবেলায় খাটো থাকলেও যৌবনকালে স্বাভাবিকভাবেই বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয়)
  • ইডিয়োপ্যাথিক খাটো গড়ন (এখানে কোনও কারণ চিহ্নিত করা না গেলেও শিশু এমনিতে স্বাস্থ্যবান হয়)

স্বাস্থ্যগত দিক থেকে যে কারণে শিশু খাটো হতে পারে

  • পর্যাপ্ত পুষ্টির অভাব বা ম্যালনিউট্রিশন
  • পরিপাকতন্ত্র, কিডনি, হার্ট, ফুসফুস, হাড় বা লিভারের কোনও ক্রনিক সমস্যা বা ডিজঅর্ডার
  • হরমোনাল ডিজঅর্ডার, যেমন হাইপোথাইরয়েডিজম (থাইরয়েড হরমোন কম থাকা), অতিরিক্ত মাত্রায় কর্টিসলের উৎপাদন (কুশিং সিনড্রোম), গ্রোথ হরমোনগুলির অভাব, অপ্রতুলতা এবং গ্রোথ হরমোনের ক্ষেত্রে বাধা, ডায়াবেটিস
  • জন্মগত অবস্থা, যেমন ইনট্রাইউটেরাইন গ্রোথ রিটার্ডেশন বা গর্ভাবস্থায় শিশুর বৃদ্ধি না হওয়া, গর্ভাবস্থাকালীন ইনফেকশন, গর্ভাবস্থায় মদ্যপান, বা জেনেটিক (ক্রোমোজোমাল) বা হাড়ের কোনও অস্বাভাবিকতা ইত্যাদি অন্যান্য কারণ

গ্রোথ হরমোনের অভাব বা গ্রোথ হরমোন ডেফিশিয়েন্সি (জিএইচডি) কী?

ইউনাইটেড আরব আমিরশাহিতে শিশুর বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হওয়ার চিকিৎসাগত কারণগুলির মধ্যে গ্রোথ হরমোনের অভাব বা জিএইচডি অন্যতম। গ্রোথ হরমোন হল পিটুইটারি গ্রন্থির অ্যান্টেরিয়র লোব থেকে ক্ষরিত একধরনের প্রোটিন। অধ্যাপক দত্তানির কথায়, “মানবমস্তিষ্কের হাইপোথ্যালামাসে উৎপন্ন হওয়া দু’টি হরমোনের দ্বারা এর ক্ষরণ নিয়ন্ত্রিত হয়। এই হরমোনদু’টি হল গ্রোথ হরমোন-রিলিজিং হরমোন (জিএইচআরএইচ), যা উদ্দীপক হিসেবে কাজ করে এবং সোমাটোস্ট্যাটিন, যা বাধাদায়ক হিসেবে কাজ করে। অ্যান্টেরিয়র পিটুইটারি থেকে গ্রোথ হরমোনের ক্ষরণের অভাবকেই গ্রোথ হরমোন ডেফিশিয়েন্সি (জিএইচডি) বলে। এই জিএইচডি আংশিক বা সম্পূর্ণ হতে পারে।”

গ্রোথ হরমোনের ডেফিশিয়েন্সি কোন কারণে হয়?

নানাকারণে শরীরে গ্রোথ হরমোন ডেফিশিয়েন্সি দেখা যায়। “এগুলির মধ্যে জন্মগত কারণ, মিডলাইন ব্রেন ডিফেক্ট, ক্রেনিয়োফেসিয়াল ডিফেক্ট অন্যতম। এছাড়া গর্ভাবস্থাকালীন সময়ে বা শিশুজন্মের পরবর্তী সময়ে ট্রমা, ক্রেনিয়োফ্যারিঞ্জিয়োমার মতো ব্রেন টিউমার, ল্যাঙ্গারহ্যানস সেল হিস্টিয়োসাইটোসিস, মেনিনজাইটিস এবং ক্রেনিয়াল ইরাডিশন বা মস্তিষ্কের টিউমারের কারণে কেমোথেরাপি ইত্যাদিও জিএইচডি-এর কারণ হতে পারে,” জানালেন অধ্যাপক দত্তানি।

জিএইচডি না প্রাকৃতিক? খাটো হলে তফাৎ কী?

এক্ষেত্রে বেশ কিছু তফাৎ দেখতে পাওয়া যায়। জিএইচডি-র কারণে শিশু যদি বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হয়, তাহলে তার ক্লিনিকাল নানা সমস্যা দেখা যায়। অধ্যাপক দত্তানির মতে, “এর ফলে কমবয়সে হাইপোগ্লাইসেমিয়া (লো ব্লাড গ্লুকোজ) হতে পারে। পরবর্তী জীবনে এর ফলে বৃদ্ধি হ্রাস পায়, কপালের অংশ বড় হয়ে নাকের অংশ ছোট হয়, কণ্ঠস্বর উঁচু হয়, চুল ও নখের ক্ষেত্রে স্বল্প বৃদ্ধি এবং পেশির বৃদ্ধি হ্রাস লক্ষ্য করা যায়। এইসমস্ত শিশুদের বৃদ্ধির হার সাধারণভাবে খুবই কম, এবং গ্রোথ চার্টেও তাদের বৃদ্ধির হার উল্লেখযোগ্যভাবে কম হয়। এরা পারিবারিক গড় উচ্চতার তুলনাতেও খুব খাটো হয়।”

অন্যদিকে, বাবা-মা উচ্চতায় খাটো হওয়ার কারণে যে-সমস্ত শিশুরা খাটো হয়, বা তাদের বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হওয়ার কোনও আলাদা কারণ থাকে না (ইডিয়োপ্যাথিক), তারা তাদের বয়সের তুলনায় স্বাভাবিক হারে বা সামান্য কম হারে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয়। গ্রোথ চার্টে এটি খুব সুন্দরভাবে ধরা পড়ে। “জিএইচডি-র ক্ষেত্রে গ্রোথ হরমোন ক্ষরণের চিহ্নক, যেমন ইনসুলিন-লাইক গ্রোথ ফ্যাক্টর ১ (আইজিএফ ১) এবং ইনসুলিন-লাইক গ্রোথ ফ্যাক্টর বাইন্ডিং প্রোটিন ৩ (আইজিএফবিপি ৩) কম থাকে। কিন্তু শিশু যদি প্রাকৃতিক বা পারিবারিক কারণে উচ্চতায় খাটো হয়, তাহলে এগুলির পরিমাণ স্বাভাবিকই থাকে,” মন্তব্য অধ্যাপক দত্তানির।

কীভাবে এর চিকিৎসা করা হয়?

সাধারণত শৈশবে এবং বয়ঃসন্ধির সময়ে শিশুদের গ্রোথ হরমোনের অভাব দেখা যায়। এইসময়গুলিতে যদি তারা বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো থাকে বা যথাযথভাবে না বাড়ে, তাহলে ধরে নেওয়া যায় যে তাদের জিএইচডি রয়েছে। “এক্ষেত্রে শিশুকে প্রতিদিন রিকমবিন্যান্ট হিউম্যান গ্রোথ হরমোন ইনজেকশন দিয়ে চিকিৎসা করা যায়। যতদিন না পর্যন্ত শিশুর বৃদ্ধি থেমে যাচ্ছে (<২ সেমি/বছর), ততদিন এই ইনজেকশন দিয়ে যাওয়া হয়। এরপর শিশুর জিএইচডি রয়েছে কিনা দেখার জন্য পুনরায় পরীক্ষা করা হয়। এই পর্যায়ে, যে-সমস্ত শিশুদের পূর্বে জিএইচডি দেখা গিয়েছিল, তাদের ২৫-৭৫%-এর ক্ষেত্রে গ্রোথ হরমোনের স্বাভাবিক ক্ষরণ দেখা যায়। আর এরপরেও যাদের গ্রোথ হরমোনের ঘাটতি থেকে যায়, তাদের কম মাত্রায় গ্রোথ হরমোন ইনজেকশন দেওয়া হয়, যেটি শারীরিক গঠন, মেটাবলিক অবস্থা এবং প্রাপ্তবয়স্কদের কার্ডিয়োভাসকুলার সিস্টেমের ক্ষেত্রে উপকারী বলে বিবেচিত হয়। এইরকম জিএইচডি সারিয়ে তোলা যায় না, এটি থেকে যায়,” জানালেন অধ্যাপক দত্তানি।

প্রাকৃতিকভাবে খাটো হলেও কি গ্রোথ হরমোন ট্রিটমেন্ট করা যায়?

না। গ্রোথ হরমোন থেরাপি (শিশুদের গ্রোথ হরমোন ইনজেকশন) কেবলমাত্র যাদের শরীরে গ্রোথ হরমোনের ঘাটতি দেখা যায় বা যাদের চিকিৎসাগত সমস্যা রয়েছে, তাদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। তবে কাজ হলেও কতটা নিরাপদ এই থেরাপি, আদৌ তাঁদের আদরের শিশুদের উপর এটি প্রয়োগ করা উচিত কিনা, সেই নিয়ে বাবা-মায়েদের প্রশ্ন থেকেই যায়। এ প্রশ্নের উত্তরে অধ্যাপক দত্তানি জানালেন, “গ্রোথ হরমোন থেরাপি একেবারেই নিরাপদ এবং জিএইচডি-র জন্য কার্যকরীও বটে। তবে যদি আপনার সন্তান যদি পারিবারিক কারণে বা ইডিয়োপ্যাথিক কারণে বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হয়, তাহলে এই থেরাপি কতটা নিরাপদ, তা এখনও প্রতিষ্ঠিত হয়নি। এবং এক্ষেত্রে এটিকে কার্যকরী বলা যায় না।”

কীভাবে আপনার শিশুর প্রাপ্তবয়সের উচ্চতা বুঝবেন?

একজন শিশু প্রাপ্তবয়সে কী উচ্চতা প্রাপ্ত হবে, তা আগে থেকে বোঝার কোনও প্রামাণ্য উপায় নেই। যদিও মেয়ো ক্লিনিকের মতে, বেশ কিছু সূত্রের সাহায্যে এবিষয়ে কিছু আন্দাজ পাওয়া যায়। এখানে একটি জনপ্রিয় উদাহরণ দেওয়া হল—

  • মা এবং বাবার উচ্চতা যোগ করুন (ইঞ্চিতে বা সেন্টিমিটারে)
  • এর সঙ্গে ছেলেদের জন্য ৫ ইঞ্চি (১৩ সেমি.) যোগ করুন এবং মেয়েদের জন্য ৫ ইঞ্চি (১৩ সেমি.) বিয়োগ করুন
  •  এবার ২ দ্বারা ভাগ করুন
  • এছাড়া, দু’বছর বয়সে একজন ছেলের উচ্চতা ও ১৮ মাস বয়সে একজন মেয়ের উচ্চতা দ্বিগুণ করলেও তাদের প্রাপ্তবয়সের উচ্চতা জানা যায়।

মনে রাখবেন, আপনার সন্তানের উচ্চতা শেষমেশ কত হবে, সেটি কিন্তু জেনেটিক্সের উপরেই নির্ভর করে। আর শিশুদের বৃদ্ধি এক-একজনের ক্ষেত্রে এক-একরকমভাবে হয়। কেউ-কেউ তাড়াতাড়ি বাড়ে। কারওর উচ্চতা আবার দেরিতে বৃদ্ধি পায়।

ফলে আপনার সন্তান বয়সের তুলনায় উচ্চতায় খাটো হলে অযথা চিন্তা করবেন না। হয়তো কয়েকদিন পরে ও আপনিই বাড়বে। আর যদি সে গ্রোথ হরমোনের অভাবে অতিরিক্ত খাটো হয়, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। যথাযথ চিকিৎসার সাহায্যে সে তার সমস্যাকে কাটিয়ে উঠতে পারবে।

Enjoy Ali Huda! Exclusive for your kids.
Enjoy Ali Huda! Exclusive for your kids.
Enjoy Ali Huda! Exclusive for your kids.