আরও ৫ টি উপায়ে অর্থের বিচক্ষনতা

বুদ্ধিমত্তায় অর্থের পরিচালনা আমাদের আর্থিকভাবে ট্র্যাকে রাখতে এবং লক্ষ্য অর্জনে সহায়তা করতে পারে। তবে এটি পালনের চাইতে বলা সহজতর। অনিবার্য যে আমাদের অর্থ পরিশোধ, বিল, এবং প্রতিশ্রুতির কারণে নানা স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। এজন্য ব্যয় সম্পর্কে সচেতন হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর্থিকভাবে বিচক্ষণ হওয়ার উপায় নিয়ে সালাম-টুডে রিংগিট প্লাস মালয়েশিয়ার চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার লিউ ওই হ্যানের শরণাপন্ন হয়েছিল। RinggitPlus.com মালয়েশিয়ার শীর্ষস্থানীয় আর্থিক তুলনামূলক প্রতিবেদনের ওয়েবসাইট।

অবস্থান সম্পর্কে জানুন

“আপনার প্রথম কাজটিতে কোথায় অবস্থান করছেন তা নির্ধারণ করা। এর অর্থ আপনি কত উপার্জন এবং ব্যয় এর পরিমাণ জানা।” যদি আপনি না জানেন তবে সচেতন হওয়ার সময় এসেছে কারণ এটি আপনার আর্থিক পরিচালনাকে আরও ভালভাবে পরিচালনা করতে সহায়তা করবে। সম্ভবত আপনি নিজের ব্যালেন্স শীট তৈরি করতে পারেন এবং যে ব্যয়সমূহ করছেন তা নোট করতে পারেন। সেখান থেকে নিজের লেনদেনটি সচক্ষে দেখতে পারেন। এর কোনটি বা কোথায় আরও বেশি সঞ্চয় করা যায় তা সনাক্ত করা সহজতর করে তুলবে।

অভ্যাসগত ব্যয় চিহ্নিত করন

কি পরিমাণ উপার্জিত এবং ব্যয় করেছেন তা প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেলে অভ্যাসগত ব্যয়ের বিশ্লেষণ করার সময় এসেছে। অর্থ কোথায় যায় তা সনাক্ত করার জন্য কি পরিমাণ ব্যয় করছেন তা জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। “আজ কোথায় ব্যয় করেছেন এবং ব্যয়ের ধরণগুলি দেখুন। তা বাইরে বেড়ানোতে বা খুব বেশি খাবারে বা পরিবহনে বা আবাসনে থাকুক না কেন। কোথায় অর্থ সাশ্রয় করা যায় তা চিহ্নিত করার বিষয়ে এটি। ব্যয়কৃত বন্ধনীগুলিতে আরও মননিবেশ, “লিউ বলেছেন

মানসিকতার পরিবর্তন

এটি সম্পন্ন করার চেয়ে বলা সহজতর, মানসিকতা সম্পর্কে। মানুষ হিসাবে, কষ্টার্জিত অর্থ দিয়ে নিজের জন্য পণ্য কেনা স্বাভাবিক। তবে লিউ নিজেকে তিনটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করার পরামর্শ দেয় – আসলেই আমার কি এটির প্রয়োজন? আমি কি এটা বহন করতে পারি? আমি কি অন্য কোথাও এটি আরও সস্তায় পেতে পারি?

আমাদের অনেকেরই অনুপ্রেরণামূলক সিদ্ধান্ত থেকে ক্রয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে। আপনি কিছু কেনার আগে, ভবিষ্যতে কীভাবে তা প্রভাব ফেলবে তা ভেবে দেখুন। এটি কি আপনাকে দেনায় জর্জরিত করবে? এটা কি দীর্ঘস্থায়ী হবে? এটির মূল্য কতো?

তবে তা সত্ত্বেও, আর্থিক স্থিতিশীলতা অর্জনের জন্য স্বাস্থ্যকর মানসিকতা থাকার অর্থ এই নয় যে আপনার জীবনযাত্রায় আপোস করা উচিত এবং একেবারে নিঃখরচে হওয়া উচিত। “বেশিরভাগ পরামর্শ সরাসরি এ দিকে চলে যায়, যা জীবনকে স্থবির করে দেয়। এটি আপনার শেষ কাজ হওয়া উচিত।

“তবে, আমাদের এখনও ঠিক করতে হবে যে এমন কিছু আছে যা পালনে বিরত থাকতে পারেন যেমন আপনার প্রয়োজন নয় এমন জিনিস কেনা” ”

আর্থিক পণ্যসমূহ পর্যালোচনা

“যদি উচ্চ সুদে ব্যক্তিগত লোণ এবং ক্রেডিট কার্ড পেয়ে থাকেন তবে প্রতি মাসে কম সুদে এই সকল লোণ একীভূত করার কোনও উপায় আছে কিনা তা সন্ধানীকরণ।

লিউ বলেছেন, দিন শেষে আপনি কিছু আলাদা করছেন না, আপনি এখনও আপনার কিস্তিগুলি কেবলমাত্র খুব কম হারে প্রদান করছেন তবে আপনি অর্থ সঞ্চয় এবং জীবনযাপন করতে পারেন।

যদি চিন্তাযুক্ত থাকেন, যে আপনার সাধারণত জীবন যাপনের পরেও কীভাবে সঞ্চয় বাড়াতে বা বজায় রাখার কোনও উপায় আছে কিনা? লিউ এর মতে, উপায় আছে। যার উদাহরণ হ’ল ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে ব্যয় করে ক্যাশবেক অর্জন।

“যদি আপনি ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার বিষয়ে শৃঙ্খলাবদ্ধ হন তবে আপনি যখন ব্যয় করবেন তখন ক্যাশবেক অর্জন করতে পারবেন। তাত্ক্ষণিকভাবে আপনার পকেটে সঞ্চয় ফিরিয়ে দিতে পারেন, “তাঁর মতে।

আরও উত্পাদনশীল হওয়া

আয়ের পরিপূরক করার অনেক উপায় রয়েছে এবং বেশিরভাগই একাধিক কাজ বা দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করার আশ্রয় নেন।

“এটি সাহায্য করে, হ্যাঁ, এবং অনেকর অবলম্বন এটি, তবে নিজেকে কীভাবে কর্মক্ষেত্রে আরও উত্পাদনশীল করে তুলব?

“এটি কর্মক্ষেত্রে আপনার উত্পাদনশীলতা বাড়ানোর বিষয়ে। যত কাজ করা যায়, উত্পাদনশীলতায় ততটা নিজের নিয়ন্ত্রণে থাকে। অনেক দেশে ক্রমবর্ধমান উত্পাদনশীলতায় আয় বৃদ্ধি করে। আপনি যদি বেশি উত্পাদনশীল হন তবে আপনাকে বেশি আয়ের পুরষ্কার দেওয়া হবে, ” তাঁর মতে।

রিংগিটপ্লাসের এক সংবাদ সম্মেলনে লিউ আলোচনা করেছিলেন যে, রিঙ্গিতপ্লাস এবং ভিসা দ্বারা রিঙ্গিতপ্লাস মালয়েশিয়ার আর্থিক সাক্ষরতা জরিপ ২০১৯ (আরএমএফএলএস ২০১৯) নামে মালয়েশিয়ায় পরিচালিত একটি সমীক্ষার বিষয়ে।

সমীক্ষায় দেখা গেছে যে প্রায় ৭০ শতাংশ মালয়েশিয়ানদের অর্থায়নের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে, কিন্তু উদ্বেগজনকভাবে ৫৩ শতাংশ উত্তরদাতা স্বীকার করেছেন যে তাদের সঞ্চয়ে তিন মাসের বেশি সময়ের জন্য জীবনযাপনে ব্যর্থ। অনুসন্ধানে আরও প্রকাশিত হয় যে মালয়েশিয়ার প্রায় ৪৩ শতাংশ উপার্জনের চেয়ে বেশি ব্যয় করে। এই পরিসংখ্যান গত বছরের তুলনায় ১০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

নীচে লিউয়ের সাথে আমাদের সাক্ষাত্কারটি দেখুন:

প্রচ্ছদ ছবি: মাইকেল লংমায়ার / আনস্প্ল্যাশ