উত্তরপ্রদেশে বিক্ষোভের আগুন, নিহত ৬

Uncategorized Tamalika Basu ২০-ডিসে.-২০১৯

লখনউ: ভারতজুড়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) প্রতিবাদে উত্তরপ্রদেশের একাধিক জায়গায় নতুন করে জ্বলে উঠেছে বিক্ষোভের আগুন। প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ৬ জন। বিজনৌরে দুইজন এবং সম্বল, ফিরোজাবাদ, মেরঠ ও কানপুরে একজন করে বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশ বিক্ষোভে গুলি চালানোর কথা অস্বীকার করেছে। উল্টো বিক্ষোভকারীদের মধ্য থেকেই গুলি চলেছে বলে দাবি পুলিশের।

কারফিউ অমান্য করে শুক্রবার রাজ্যের একাধিক জায়গায় বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর ফিরোজাবাদে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন বিক্ষোভকারীরা। সে সময় পুলিশের গুলিতে সেখানে একজন নিহত হওয়ার কথা জানানো হয়েছিল প্রাথমিক খবরে। এর আগের দিন লখনউতে নিহত হয়েছিল আরো একজন। তবে বিক্ষোভে একটিও গুলি চালানো হয়নি বলেই দাবি করেছেন উত্তরপ্রদেশের ডিজিপি ওপি সিংহ। তিনি বলেন, “গুলি চলে থাকলে তা বিক্ষোভকারীদের মধ্য়ে থেকেই চলেছে।’’ শুক্রবার সকালে উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহর, গোরক্ষপুর-সহ একাধিক জায়গায় বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নেমে ব্যাপক ভাঙচুর করেছে। আগুন ধরিয়েছে একাধিক গাড়িতে। পুলিশ তাদের বাধা দিতে গেলে সংঘর্ষ বাধে। কানপুরে বিক্ষোভ-সহিংসতায় জখম হয় ৮ জন। এর আগে বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশে দফায় দফায় সংঘর্ষ এবং পুলিশের গুলিতে লখনউতে একজন মারা যাওয়ার পরই গোটা রাজ্যে ১৪৪ ধারা জারি হয়েছিল। তার মধ্যেই পরদিন ফের এ বিক্ষোভ হল।