‘করোনা ডিপোজিট’ জমা দিলে তবে কম্বোডিয়া ভ্রমণ

বিশ্ব Tamalika Basu ২০-জুন-২০২০

কম্বোডিয়ায় বেড়াতে যাওয়ার কোনও প্ল্যান আছে? তবে আপনার ঘোরার বাজেট আরও বাড়তে চলেছে। কারণ করোনা পরিস্থিতিতে পর্যটকদের থেকে এবার এককালীন ৩,০০০ মার্কিন ডলার অগ্রিম অর্থ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কম্বোডিয়া সরকার। অনেকে একে ‘করোনা ডিপোজিট’ আখ্যা দিয়েছেন। ভারতীয় মুদ্রায় যা দাঁড়ায় প্রায় ২ লক্ষ ২৮ হাজার ৪০০ টাকা। ছুটি কাটাতে গিয়ে কোনও পর্যটক করোনা আক্রান্ত হলে এই জমা অর্থ থেকেই তাঁর চিকিৎসা-সহ যাবতীয় বন্দোবস্ত করা হবে।

করোনা সংক্রমণের গোড়ার দিকে বেড়াতে গিয়ে কোনও পর্যটক করোনা আক্রান্ত হলে তাঁর যাবতীয় চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা হবে বলে ঘোষণা করেছিল কম্বোডিয়া। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে আগের অবস্থান থেকে ১৮০ ডিগ্রি পাল্টি খেয়েছে তারা। ফলে পকেটে চাপ পড়তে চলেছে পর্যটকদের। চলতি সপ্তাহে কম্বোডিয়া সরকারের অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রকের তরফে এক নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যাতে বলা হয়েছে, সে দেশে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গে ন্যূনতম ৩৮ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্যবিমার নথি দাখিলের পাশাপাশি এবার থেকে পর্যটকদের ৩ হাজার মার্কিন ডলার জমা রাখতে হবে। বিমানবন্দরে সরকারের বেঁধে দেওয়া ব্যাংকের শাখায় নগদ বা ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে জমা দিতে হবে এই টাকা। ছুটি কাটাতে গিয়ে কোনও পর্যটক করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে বা কভিড উপসর্গ দেখা দিলে জমা অর্থ তাঁর চিকিৎসার কাজে খরচ করা হবে। এ ছাড়া বাধ্যতামূলক করানো টেস্টের যাবতীয় খরচ সরকার কেটে নেবে ওই জমা টাকা থেকেই। কোন খাতে কীভাবে খরচ করা হবে, তাও কম্বোডিয়া সরকার বিশদে জানিয়ে দিয়েছে।