কান কেন চুলকায়?

questionmark_john_tyson_
Güçlü zihin, güçlü hafıza. Fotoğraf: Jon Tyson-Unsplash

আমাদের পঞ্চ ইন্দ্রিয়ের মধ্যে একটি হল কান। এটি অত্যন্ত সংবেদনশীল। তাই কানের প্রতি প্রত্যেকের যত্নশীল হওয়া অবশ্যই দরকার। অনেকেই কানের সমস্যায় ভোগে। কানে চুলকানি হয় এরকম অনেক রোগীই আছেন কিন্তু তারা ঠিক কি করে? এটাকে ছোটো সমস্যা ভেবে উড়িয়ে দেয় আর যখন বাড়াবাড়ি হয়ে যায় তখন ডাক্তারের কাছে পরামর্শ নিতে যায়। এটা মোটেও ভালো ব্যাপার না, বিভিন্ন সিরিয়াস সমস্যা দেখা যেতে পারে।

কান চুলকানো একটা কারণে হয় না, এর একাধিক কারণ বিদ্যমান। অনেকেই বন্ধু বা আত্মীয়স্বজনের সাথে পরামর্শ করে নিজেই কিছু করে, এতে কি হয়, ভালোর জায়গায় খারাপ সাধিত হয়। তাই কান কেন চুলকায়? এটা জেনে নিন।

অনেকেই কান চুলকানোর কথা মনে করলে প্রথম কারণ হিসেবে যেটা ভাবেন তা হল এক্সটার্নাল অডিটরি ক্যানালে অর্থাৎ এক্ষেত্রে কানের বাইরের যে সরু পথটা কানের ভেতর পর্দা পর্যন্ত চলে গেছে, সেখানকার যেকোনো সমস্যা থেকে এটা হতে পারে,লক্ষ্য করে দেখা গেছে অনেকের এই সরু পথের চামড়াটা অনেক সময় শুষ্ক থাকে। আর এই শুষ্কতার কারণই হতে পারে  কানে চুলকানি। আবার অনেকের গোসলের সময় পানি কানের মধ্যে  ঢুকে যায় বা গরমের সময় আমাদের প্রচণ্ড  ঘাম হয় সেটা ঢুকেও চুলকানি হতে পারে। অনেকের আবার কানের ময়লা ও খোল জমে, তা দীর্ঘদিন পরিষ্কার না করার ফলে কান চুলকাতে পারে। কারও কারও নানা রকম চর্ম রোগের সংক্রমণ হয়ে কান চুলকাতে পারে।

কানের পর্দার দুপাশের বায়ুচাপের তারতম্যের ফলে কান চুলকাতে পারে। কানের পর্দা আগে থেকেই কোনো ফাটল বা ছিদ্র থাকলে মধ্যকর্ণের নানা রকম সংক্রমণ থেকেও কান চুলকাতে পারে। কানের পর্দার পেছনে অনেকসময় কফ বা পানি জমে ফলে কান চুলকাতে পারে। কানের পর্দা ফেটে গিয়ে, কানের সংক্রমণ হয়ে কান চুলকাতে পারে। এ ছাড়া কানে আমরা ঘন ঘন কটন বাড, চাবি, কলমের ঢাকনা, পাখির পালক, ধাতব বস্তু ইত্যাদি জিনিস দিয়ে খোঁচাই ফলে পরে তা কান চুলকানোর কারন হতে পারে, কানে সংক্রমনও দেখা যায়। কান থেকে গলের ভেতর একটা সরু রাস্তা আছে যা  ইউস্টেশিয়ান টিউব নামে পরিচিত। এই টিউব থেকেও সমস্যা সৃষ্টি হয়।

নাকের হাড় বাঁকা, মাংস বৃদ্ধি, পলিপ, অ্যালার্জি, ঘন ঘন সাইনাসের সংক্রমণ ইত্যাদির কারণে কান চুলকাতে পারে। নাকের পেছনে থাকা একধরনের টনসিল বেড়ে যাওয়াকে বলে এডেনয়েড। এডেনয়েডের সমস্যাও হতে পারে কান চুলকানোর কারন। বাচ্চাদের ক্ষেত্রে সাধারণত এটা বেশি চোখে পড়ে।এ ছাড়া নাকের পেছনে যে জায়গাটা ন্যাসোফ্যারিংস বলা হয়  সেখানের যে কোনো ধরনের রোগের উদ্ভব হলেই  কানে চুলকানোর একটা অনুভূতি শুরু হতে পারে।

গলার নানাবিধ সমস্যা যেমন টনসিলের ঘন ঘন সংক্রমণ, ফলে কান চুলকায়। কারণ, ওই ইউস্টেশিয়ান টিউব মধ্যকর্ণের এক কোনা থেকে শুরু হয়ে নাকের পেছনে তালু যেখানে শেষ, সেদিকে এসে টনসিলের মাথার দিকটায় গিয়ে গলায় খোলে। তাই টনসিলের সমস্যা থেকে কান চুলকানো খুবই স্বাভাবিক একটা কারণ । এ ছাড়া গলার অন্যান্য যেকোনো সংক্রমণের ক্ষেত্রেও কান চুলকাতে পারে।

নাক-কান-গলা তিনটে যেমন ওতপ্রোতভাবে আমাদের সমস্ত কাজে জড়িত, তেমনি সমস্যাগুলোও তাই। রোগ, লক্ষন অনেকসময় এক হলেও কারন আলাদা তাই সশরীরে ডাক্তারের কাছে যাওয়াটা খুবই জরুরি।যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত বলে,ফোন ভিডিও কলে পরামর্শ নিয়ে ভুলটা করবেন না কারন ক্ষতিটা আপনার নিজেরেই হবে।

কানের সমস্যা বা যেকোনো সমস্যা ছোটো করে না দেখে ডাক্তার এর পরামর্শ নিন ও সুস্থ থাকুন।