কৈশোরের অপরাধে মৃত্যদণ্ড বন্ধ সৌদি আরবে

বিশ্ব Tamalika Basu ২৭-এপ্রিল-২০২০
Saudi Arabia and United Arab Emirates
National fabric flags of Saudi Arabia and United Arab Emirates isolated on white background. 3d rendering illustration.

অপ্রাপ্তবয়সে করা অপরাধের জন্য কাউকে শিরশ্ছেদের সাজা দেওয়া হলে, তা আর কার্যকর করবে না সৌদি আরব। বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের ডিক্রির সূত্র দিয়ে সউদির রাষ্ট্রীয় মানবাধিকার কমিশন (এইচআরসি) এমন খবর দিয়েছে।

আদেশে বলা হয়, নাবালক অবস্থায় করা অপরাধের দরুন কোন নারী কিংবা পুরুষকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা দেওয়া হলে তা আর কার্যকর করা হবে না। বিকল্প হিসেবে ওই ব্যক্তিকে কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। কিন্তু কিশোর সংশোধন কেন্দ্রের সাজা দশ বছরের বেশি হবে না।

এক বিবৃতিতে এইচআরসির সভাপতি আওয়াদ আল-আওয়াদ এসব দাবি করেছেন।এর আগে সৌদি আরবে চাবুক মারার শাস্তি উঠিয়ে নেওয়া হচ্ছে। সৌদির সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, চাবুক মারার বদলে কারাদণ্ড কিংবা জরিমানার বিধান করা হবে।
বলা হয়েছে, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও তার ছেলে মোহাম্মদ বিন সালমানের মানবাধিকার সংস্কারের অংশ হিসেবে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি, ভিন্নমতাবলম্বীদের দমনসহ প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে রয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।
সৌদিতে সর্বশেষ চাবুক মারার ঘটনা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার করা হয় ২০১৫ সালে। তখন ব্লগার রাফি বাদাওয়িকে প্রকাশ্যে চাবুক মারার ঘটনা ঘটেছিল।