খালি পেটে লেবু এবং মধু, কমবে ফ্যাটি লিভার

স্বাস্থ্য Tamalika Basu ০৬-ডিসে.-২০১৯

মানবদেহে যকৃৎ বা লিভারে একটা নির্দিষ্ট মাত্রায় চর্বি থাকা স্বাভাবিক। কিন্তু সেই নির্দিষ্ট মাত্রার চেয়ে ৫ থেকে ১০ শতাংশ বেশি হলেই তা ফ্যাটি লিভার বলে বিবেচিত হয়। ফ্যাটি লিভার কিন্তু শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর। এর প্রাথমিক লক্ষণ বোঝা খুবই মুশকিল। তবে আলট্রাসনোগ্রাম করাতে গিয়েই বেশিরভাগ ক্ষেত্রে লিভারের ফ্যাট ধরা পড়ে।চিকিৎসকদের মতে, ফ্যাটি লিভার দুই প্রকার। এক. অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ। দুই. নন-অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ। মাত্রাতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে যকৃৎ বা লিভারে যে ফ্যাট জমা হয় তাকে বলা হয় ‘অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ’। খাদ্যাভ্যাস বা জীবনযাত্রায় মাত্রাতিরিক্ত অনিয়মের ফলে লিভারে যে ফ্যাট জমা হয়, তাকে ‘নন-অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার ডিজিজ’ বলা হয়।

ফ্যাটি লিভার নিয়ন্ত্রণে কিছু ঘরোয়া উপায় রয়েছে

১ । সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে এক গ্লাস লেবু আর মধু মিশিয়ে খেয়ে নিন। লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। লেবুতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লিভারে এক ধরনের এনজাইম তৈরি করে, যা লিভারের চর্বি গলাতে সাহায্য করে। এক মাস খেলে উপকার পাবেন।

২ । অ্যাপল সাইডার ভিনেগার ফ্যাটি লিভার ডিজিজে সেরা প্রতিকার। এই অ্যাপল সাইডার ভিনেগার লিভারের পাশে জমে থাকা চর্বি কমিয়ে ওজন নিয়ন্ত্রণে আনতে সাহায্য করে।

কীভাবে খাবেন?

১. এক গ্লাস গরম পানিতে এক চামচ অ্যাপল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিন। চাইলে এর সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে নিতে পারেন।

২. দুবেলা খাওয়ার আগে এই মিশ্রণ এক গ্লাস খাওয়ার চেষ্টা করবেন। তবে সকালে খালি পেটে খাওয়াটাই বেশি ভালো।

মাসখানেক নিয়ম মেনে এই মিশ্রণ সেবন করতে পারলেই ফ্যাটি লিভারের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।