গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি পানি ভাঙলে কি স্বাভাবিক প্রসব সম্ভব?

স্বাস্থ্য ১৭ মার্চ ২০২১ Contributor
ফিচার
গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি পানি ভাঙলে
© Steve Allen | Dreamstime.com

গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি পানি ভাঙলে কী করবেন, তা অনেকসময়েই বুঝে উঠতে পারেন না। এই নিয়ে যথাযথ ধারণা না থাকার ফলে বেশিরভাগ সময়েই আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। এই পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক উপায়ে প্রসব করানো উচিত হবে কিনা, সেই সম্পর্কেও সকলের মনে স্বচ্ছ ধারণা থাকে না। কিন্তু গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি জল ভাঙলেও বেশিরভাগ মহিলাদের ক্ষেত্রেই স্বাভাবিকভাবে প্রসব করানো সম্ভব হয়। আজ আমরা সেই নিয়ে আলোচনা করব।

পানি ভাঙা কাকে বলে?

গর্ভাবস্থায় সন্তান জরায়ুর মধ্যে তরলপূর্ণ একটি থলির মধ্যে থাকে। একে অ্যামনিয়োটিক থলি বলে। প্রসবের কিছু পূর্বে বা প্রসবের সময় এই অ্যামনিয়োটিক থলি ফেটে যায়, এবং তার কিছু পরেই সংকোচন শুরু হয়। একেই পানি ভাঙা বলে। তবে অনেকসময় প্রসবের বেশ কিছু সপ্তাহ আগেও জল ভেঙে যায়। মিশিগান ইউনিভার্সিটির এক সমীক্ষা অনুযায়ী, প্রায় ১১% মহিলা প্রসবের শুরুর পূর্বেই পানি ভাঙা বা প্রি-লেবার রাপচার অফ মেমব্রেন (পিআরওএম)-এর সম্মুখীন হন। সেক্ষেত্রে প্রসব এগিয়ে আনার হার, মায়ের ইনফেকশন, নবজাতকের অবস্থা, এবং যারা নির্দিষ্ট সময়ে প্রসব করেছেন, তাঁদের কত সময় বাকি, প্রসব হাসপাতাল না বাড়ি, কোথায় করানো হয়েছে, এইসমস্ত পরীক্ষা করে দেখাই সমীক্ষার উদ্দেশ্য ছিল।

সাধারণত, গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি পানি ভাঙলে প্রসবকে কিছু মাধ্যমের সাহায্যে শুরু করানো হয়। কিন্তু মিশিগান ইউনিভার্সিটির নবতম গবেষণা অনুযায়ী, প্রত্যাশিত ব্যবস্থাপনায়, পানি ভাঙার পরে স্বতঃস্ফূর্তভাবে প্রসব শুরু করা জন্য অপেক্ষা করলে তা ভ্রূণ বা মায়ের কোনও ক্ষতি করে না। তাই প্রসব শুরু করা হবে কিনা, বা প্রসবের ক্ষেত্রে কোন ব্যবস্থা অবলম্বন করা হবে, সেই সিদ্ধান্ত ভাবি মায়ের ইচ্ছা এবং স্বাস্থ্যের উপর ভিত্তি করেই নেওয়া উচিত, বলছেন নার্সিংয়ের ইউ-এম ক্লিনিকাল অধ্যাপক, নার্স ধাত্রী ও এই গবেষণার সহ-লেখক রুথ জিয়েলিনস্কি।

গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি পানি ভাঙলে স্বাভাবিক প্রসব সম্ভব

দ্য আমেরিকান কলেজ অফ অবস্টেট্রিসিয়ান্স অ্যান্ড গাইনোকোলজিস্ট প্রসবকে তরান্বিত করার পরামর্শ দিলেও, স্বাভাবিক ও সুস্থ প্রেগনেন্সির ক্ষেত্রে আমেরিকান কলেজ অফ নার্স মিডওয়াইভস-এর মতে, নির্দিষ্ট সময়ের প্রসবেও প্রত্যাশিত ব্যবস্থাপনার বিকল্প রাখা উচিত।

জিয়েলিনস্কি এবং তাঁর সহকর্মীরা ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে একটি মিডওয়েস্টার্ন মিডওয়াইফারি পরিষেবা সংস্থার থেকে পরিষেবাপ্রাপ্ত ২,৩৫৭ জন মহিলাদের নিয়ে সমীক্ষা চালান। এঁদের মধ্যে ২৮১ জন (১২%) মহিলাদের তাড়াতাড়ি অ্যামনিয়োটিস থলি ভেঙে যায়। এই মহিলাদের মধ্যে ১৫০ জন (৫৩%) বাড়িতেই প্রসববেদনার জন্য অপেক্ষা করেন এবং ১০২ জন (৩৬%) হাসপাতালে যান। ২১ জন (৭.৫%) জনকে তৎক্ষণাৎ প্রসবের জন্য ভর্তি করে নেওয়া হয় এবং ৮ জনকে (৩%) সঙ্গে-সঙ্গে সিজারের জন্য ভর্তি করা হয়।

স্বাভাবিক প্রসবে ইনফেকশনের হার বাড়ে কি?

যারা অপেক্ষা করছিলেন, তাঁদের মধ্যে বেশিরভাগের (৬৫%) প্রসব কোনও কিছু ছাড়াই স্বতঃস্ফূর্তভাবে শুরু হয়। মা ও শিশুদের ইনফেকশনের হার এক্ষেত্রে একই।

সাধারণত গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি জল ভাঙলে প্রসবকে তরান্বিত করা হয়, কারণ প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী, অ্যামনিয়োটিক থলির জল ভাঙা এবং প্রসবের মধ্যে যত দেরি হয়, ততই নাকি ইনফেকশনের সম্ভাবনা বাড়তে থাকে।

জিয়েলিনস্কির কথায়, “বেশিক্ষণ মেমব্রেন ফাটা থাকলে তা ইনফেকশনের সম্ভাবনা বাড়ায়, তাই যে-সমস্ত মায়েদের আগেই পানি ভেঙে যায়, তাঁরা যদি গ্রুপ বি স্ট্রেপ (জিবিএস) ব্যাকটেরিয়ার বাহক হন, তাহলেই প্রসবের কার্যাবলী দ্রুত শুরু করাই শ্রেয়।” প্রসঙ্গত দেখা গিয়েছে, প্রায় ১০-৩০% মহিলাই এই ব্যাকটেরিয়ার বাহক হন, আর এঁদের ক্ষেত্রেই ইনফেকশনের সম্ভাবনা বেশি থাকে।

গ্রুপ বি স্ট্রেপ খুব সাধারণ একটি ব্যাকটেরিয়া, তবে এক্ষেত্রে সবার ইনফেকশনের সম্ভাবনা থাকে না। কিন্তু তাও যাতে তা সদ্যোজাত সন্তানের মধ্যে না ছড়িয়ে পড়ে, তাই সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য প্রসবের সময় ডাক্তাররা প্রোফাইল্যাক্সিস অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। জিয়েলিনস্কি জানালেন, সদ্যোজাতদের মধ্যে এই ইনফেকশনে আক্রান্ত হওয়ার হার খুব বেশি না হলেও, আক্রান্ত শিশুদের ক্ষেত্রে ইনফেকশনের মাত্রা খুব বেশি থাকে।

ভাবি মায়ের ইচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ

“২৬ বছর আগে যখন আমি ধাত্রী বিদ্যালয় থেকে স্নাতক হয়েছিলাম, তখন ধারণা ছিল সকলেই বুঝি প্রসব তরান্বিত করাকে এড়িয়ে যেতে চান। কিন্তু সেটি একেবারেই নয়!” তাঁর কথায়, “প্রায়শই, রোগীরা ব্যাপারটিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চান ও বেশিরভাগেই প্রসব এগিয়ে আনায় কোনও সমস্যা থাকে না। যদিও, সুস্থ, স্বাস্থ্যকর এবং নির্দিষ্ট সময়ে প্রেগন্যান্সিতে, প্রসববেদনা শুরু হওয়ার জন্য অপেক্ষা করাই যুক্তিযুক্ত এবং সেটির জন্যই রোগীকে পরামর্শ দেওয়া উচিত। তাই এক্ষেত্রে পরিষেবা প্রদানকারীর সঙ্গে গর্ভবতী মহিলার আলোচনা করে নেওয়াই বাঞ্ছনীয়।” তাই গর্ভাবস্থায় তাড়াতাড়ি পানি ভাঙলে এখন থেকে দুশ্চিন্তা করা বন্ধ করুন। আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন, এবং সম্ভব হলে ও আপনার ইচ্ছে থাকলে স্বাভাবিক উপায়ে প্রসবকেই বেছে নিন।