ঘরেই তৈরি করুন পপকর্ন

যান্ত্রিক এ জীবনের মাঝে কিছু সময় আমরা খুঁজে বের করি নিজেদের ক্লান্তিটা দূর করতে। পরিবারের সাথে একসাথে বসে মুভি দেখে কিছু আনন্দের সময় কাটাবার জন্য, বন্ধুদের আড্ডার মাঝে গল্প করে নিজেদের ক্লান্তিকে আমরা ভুলিয়ে দেই। এ মুর্হূতগুলোকে আরও মজার হয়ে উঠে যখন সাথে থাকে পপকর্ন এর মজা।

পপকর্ন খেতে কে না ভালোবাসে বলুন। ছোট থেকে বৃদ্ধ সবাই পপকর্ন  খেতে খুব ভালোবাসেন। খেলা দেখতে দেখতে কিংবা সিনেমায় পপকর্ন এর কোন জুড়ি নেই।  সবাই সব সময় পপকর্ন  খেতে চায়।পপকর্ন খায় না এমন লোক কমই আছে।  বিশেষ করে ছোট বাচ্চারা পপকর্ন  খেতে খুব ভালোবাসে। আর তা যদি হয় বাড়ির বানানো পপকন তাহলে কেমন হয়। অনেকেই ভাবছে বাড়িতে পপকর্ন অসম্ভব কিন্তু আমি বলছি না সম্ভব। খুব কম সময়ে এবং চটজলদি তে পপকর্ন  ভেজে নেওয়া যায়। মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই তৈরি হয়ে যায় পপকর্ন  তৈরি হয়ে যায়।

এই পপকর্ন অনায়াসে ছেলেরাও বানাতে পারে। সবাই ভাবছেন ছেলেরাও, হ্যাঁ আমি বলছি ছেলেরাও বানাতে পারে খুব অল্প সময়ে পপকর্ন ভেজে ছেলেরা যে কাউকে তাক লাগিয়ে দিতে পারে। পপকর্ন ভাজতে খুব বেশি সময়ের প্রয়োজন হয় না। মাত্র দুই থেকে তিন মিনিটের মধ্যেই ভাজা যায়।একটি সুস্বাদু ও মুখরোচক খাবার।

পপকর্ন সুস্বাদু ও মুখরোচক খাবার সকলেই প্রায় পছন্দ করে। একটি সারা বছরই খাওয়া যায় পপকর্ন বাহিরে খাওয়াচ্ছে আমার মনে হয় ঘরে বানানো পপকর্ন আরো বেশি টেস্টি ও স্বাস্থ্যকর হয়ে থাকে। বাজারে কিনে খাওয়া আর বাসায় বানানো  পপকর্ন এর স্বাদই আলাদা। তবে আমি আপনাদেরকে সাজেস্ট করব যে বাহিরে কোন কিছু কিনে খাওয়ার চেয়ে ঘরে বানানো জিনিস খাওয়া অনেক ভালো। এতে স্বাস্থ্য ভালো থাকে, কারণ বাহিরে ধুলাবালি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার খেয়ে বাসায় বানিয়ে খাওয়া অনেক ভালো। বাহিরের পপকর্ন  থাকে ঘরে তে বানিয়ে নিলেও সে ধরনের স্বাদ পাওয়া যাবে তাহলে আর দেরি না করে চলুন তৈরি করে ফেলি সুস্বাদু মজাদার মুচমুচে ঘরে বানানো পপকর্ন।

উপকরণ: ভুট্টার দানা ১ কাপ, লবণ সামান্য, সয়াবিন তেল বা মাখন ১ টেবিল চামচ, চিনি  ১ কাপ, বাটার ১ টেবিল চামচ, ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা চামচ।

প্রণালী: প্যানে ভালো করে গরম করে মাখন দিন। মাখন গরম হলে তাতে ভুট্টার দানা ও লবণ দিয়ে ঢেকে দিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। মাঝে দু-একবার ঝাঁকিয়ে দিন। সব ভুট্টা ফুটে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। অন্য পাত্রে চিনি পানি জ্বাল করে ক্যরামেল বানিয়ে নিন। এর মধ্যে বাটার, ভ্যানিলা এসেন্স, পপকর্ন দিয়ে মিশিয়ে নিন। পপকর্ন ভাজা হয়ে গেলে এর উপর আপনারা চাইলে চাট মসলা কিংবা অন্য কোন মসলা ব্যাবহার করতে পারেন বা বিট লবণ ও দিতে পারেন।

Source: The Daily Bangladesh

Photo: Collected