শরিয়াহ সম্মত ওয়েব পরিবেশ. আরওসন্ধানকরুন

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে এক কোটির বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎহীন বাংলাদেশে

বিশ্ব Tamalika Basu ২১-মে-২০২০
ID 171855455 © William Tobing | Dreamstime.com

আম্পানের কারণে বাংলাদেশের দক্ষিণ, পশ্চিম ও উত্তরের ২৫ জেলার ১ কোটি ৫০ লাখ গ্রাহক ঝড়ের আগেই বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে। এসব জেলার বেশির ভাগ স্থানে ঝড় শুরু হওয়ার ১২ থেকে ২৪ ঘণ্টা আগেই বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয় বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থাগুলো। আর ঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ লাইনের ওপর গাছ ভেঙে পড়ায় এসব স্থানে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যেও বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হবে না। এখন সারা দেশে এক কোটির বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎহীন অবস্থায় আছেন।

বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থাগুলোর সূত্রে এ কথা জানা গেছে। সংস্থাগুলো বলছে, আজ রাত ১২টার মধ্যে বেশির ভাগ গ্রাহক এবং কালকের মধ্যে বাকিরা আবার বিদ্যুৎ-সুবিধা পাবেন। সেভাবেই কাজ চলছে। দেশে মোট গ্রাহকের সংখ্যা ৩ কোটি ৬৪ লাখ। এদিকে বিদ্যুৎ না থাকায় এসব এলাকার কোথাও কোথাও মুঠোফোনের নেটওয়ার্কও বন্ধ হয়ে গেছে। কোথাও কোথাও নেটওয়ার্ক দুর্বল। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের বিদ্যুৎ বিভাগ, পল্লী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডসহ (আরইবি) অন্যান্য বিতরণ সংস্থার কর্মকর্তার সঙ্গে কথা এ তথ্য জানা গেছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় আম্পনের কারণে ২৬ জেলায় এ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী প্রায় ১১০০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত জেলাসমূহ হচ্ছে সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী ও বরগুনা।

ঘূর্ণিঝড়ের কারণে এ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ১০ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এদের মধ্যে পটুয়াখালীতে দুজন, যশোরে তিনজন, ভোলায় একজন, পিরোজপুরে একজন,সাতক্ষীরায় একজন এবং চুয়াডাঙ্গা জেলায় দুইজন মৃত্যুবরণ করেছেন।

কিছুবলারথাকলে

যোগাযোগকরুন