জিন বাদশাহর ভুয়া খপ্পরে সরকারি শিক্ষিকা

Uncategorized Tamalika Basu ১৬-ডিসে.-২০১৯

ঢাকা: অন্ধ বিশ্বাস ও কুসংস্কারের সুযোগ নিয়ে এক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকার থেকে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেবার অভিযোগ উঠল। ঘটনা দিনাজপুরের। ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছেন দুজন। ঢাকা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) আবেদনে চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত সোমবার তাঁদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

ওই শিক্ষিকার ছেলে মো. রকিবুল ইসলাম গত শনিবার শাহবাগ থানায় গাইবান্ধার গোসাইপুর গ্রামের শাহাদাত হোসেন (২০) ও সাবু মিয়ার  (২০) বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার এজাহারে রকিবুল দাবি করেছেন, তাঁর মা দিনাজপুরের একটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। তাঁর মাকে জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে প্রতারক চক্রের সদস্যরা মুঠোফোনে কথা বলেন। পারিবারিক শান্তি ও ধনদৌলতের প্রলোভন দেখিয়ে তাঁর মায়ের কাছ থেকে বিভিন্ন সময় মোট ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে চক্রটি। টাকা দেওয়ার কথা কাউকে না বলার জন্য বারবারই পরামর্শ দিয়ে আসছিল চক্রের লোকজন। সর্বশেষ গত সেপ্টেম্বর মাসে চক্রের সদস্যরা তাঁর মাকে টাকা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার একটি মাজারে দেখা করতে বলেন।

রকিবুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। তাঁর দাবি, ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে এবং ধনদৌলতের লোভ দেখিয়ে প্রতারক চক্রটি তাঁর মাকে ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নেয়। ঢাকার আদালতে পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শাহাদাত ও সাবু মিয়া অনেক লোকের সঙ্গে এমন প্রতারণা করার কথা স্বীকার করেছেন।