ঢাকা সংলগ্ন নদীগুলির পানি বিপদসীমার উপরে, করোনার মাঝে বন্যার আশঙ্কা রাজধানী শহরে

বিশ্ব Tamalika Basu ০৭-আগস্ট-২০২০
Sky view of Dhaka

করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) দাপটে জর্জরিত বাংলাদেশ। গত পাঁচ মাস ধরে দেশের মানুষ স্বস্তিতে নেই। তার মাঝে নতুন বিপদ নিয়ে এল বন্যা। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নদ-নদীর পানি  কমতে শুরু করলেও বিপদ বাড়ছে রাজধানী ঢাকার। দেশের কিছু মানুষ মাসব্যাপী টানা বন্যায় ভুগেছে।

এবার ঢাকার আশপাশের নদ-নদীর পানি বেড়ে চলেছে। ইতিমধ্যে প্লাবিত হয়েছে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন (Dhaka City Corporation) সংলগ্ন নিম্নাঞ্চল ঢাকা, গাজিপুর ও নারায়ণগঞ্জ জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা। ঢাকা ঘিরে থাকা তুরাগ ও বালু নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এসব নদ-নদীর পানি খালের মাধ্যমে ঢুকে রাজধানী-সহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকাকে প্লাবিত করছে। পুরানো ঢাকা সংলগ্ন বুড়িগঙ্গার পানি এখনো বিপদসীমার নিচে থাকলেও প্রতিদিন জলের উচ্চতা বাড়ছে। বিপদসীমার উপরে রয়েছে ঢাকার পার্শ্ববর্তী ধলেশ্বরীর পানি।

এভাবে প্রতিটি নদীর পানিস্তর বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে রাজধানীর চারপাশের নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হওয়ার পাশাপাশি হতে পারে দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতা। ঢাকার দক্ষিণখান, সাঁতারকুল, বাড্ডা, বেরাইদ, ডুমনি, রামপুরা, গোড়ান, বাসাবো, ডেমরা, যাত্রাবাড়ী ও ডিএনডি বাঁধ এলাকার নিম্নাঞ্চলে পানি ঢুকে পড়েছে। প্লাবিত হয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের চারটি ওয়ার্ড এলাকা। এছাড়া সংযোগ খাল দিয়ে বন্যার পানি ঢুকে পড়ছে নগরীর ভেতরেও। তলিয়ে গেছে সাভার, গাজিপুরের টঙ্গী, কাপাসিয়া, কালীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ-সহ রাজধানী ও আশপাশের জেলাগুলোর অনেক এলাকা।