দু’দশক ক্ষমতায় কেন থাকতে পারেনি আওয়ামী লীগ, জবাব দিলেন হাসিনা

Uncategorized Tamalika Basu ২৩-ডিসে.-২০১৯

ঢাকা: পার্টিতে ভাঙন না হলে ৮০’র দশকেই আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করতে পারতো বলে মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রবিবার (২২ ডিসেম্বর) রাতে গণভবনে একুশতম জাতীয় সম্মেলনে নবম্বারের মতো আওয়ামী লীগ সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় শেখ হাসিনাকে শুভেচ্ছা জানান বিভিন্ন পর্যায়ের তৃণমূল নেতারা। শুভেচ্ছা বিনিময়কালে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্বপালন করতে গিয়ে বিভিন্ন সময় কষ্টের কথাগুলো তৃণমূল নেতাদের কাছে তুলে ধরেন তিনি।

১৯৮১ সালে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্বগহণের পর দলের ভেতরে-বাইরের ষড়যন্ত, অসহযোগিতা, দলে ভাঙনসহ অজানা অনেক কথা তৃণমূল নেতাদের কাছে তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আপনাদের মনে আছে এই সংগঠন গোছাতে কম কষ্ট করতে হয়নি।’
১৯৭৫’র পর ক্ষমতায় আসতে আওয়ামী লীগকে ২১ বছর অপেক্ষার কারণ তুলে ধরে তিনি আরও বলেন, “হয়তো ৮০’র দশকেই আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করতে পারতো, নির্বাচন করে জয়ী হতে পারতাম।”

১৫ আগস্টের মর্মান্তিক ঘটনার সময় আওয়ামী লীগ নেতাদের ভূমিকা নিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করে  শেখ হাসিনা বলেন, তখনও এত নেতা ছিল কিন্তু আমরা জাতির পিতাকে রক্ষা করতে পারিনি। ওনার লাশ পড়ে থাকল, কেউ এগিয়ে আসল না।

১৯৮১ সালে দেশে ফিরে আওয়ামী লীগ সভাপতির দায়িত্বগ্রহণের পর অনেকের অসহযোগিতা প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, দলকে সংগঠিত করার লক্ষ্যে এই আমি দেশে ফিরে সব চাচাদের (তৎকালীন সিনিয়র নেতা) দরজায় দরজায় ঘুরেছি। সবার কাছে গেছি। কিন্তু কার কাছে কি পেয়েছি, সব কথা আমি জানি। আমি সব কথা বলতে চাই না।

‘সবচেয়ে দুঃখজনক হলো আমি ৮১ সালে আসলাম, ৮২ সালে একবার পার্টি ভাঙলো। এই ভাঙাটা আমার জন্য খুব ক্ষতিকর ছিল।’ তিনি বলেন, ‘১৯৮২ সালে আব্দুর রাজ্জাক সাহেব পার্টি ভেঙ্গে গেলো,ঐ ভাঙনটা যদি না হতো তাহলে হয়তো আওয়ামী লীগ ৮০’র দশকে সরকার গঠন করতো পারতো, নির্বাচন করে জয়ী হতে পারতাম। তখন আর এরশাদ ওভাবে মার্শাল ল’ দিয়ে ওভাবে গেড়ে বসতে পারতো না।’