নিজ উদ্যোগে কোয়ারানটাইন থাকতে পরামর্শ বাংলাদেশ সরকারের

বিশ্ব Tamalika Basu ১২-মার্চ-২০২০
China Virus
Medics in white hazmat protective suits checking and scanning passengers in a plane for epidemic virus symptoms. Chinese new Wuhan coronavirus illustration.

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনাভাইরাস সম্পর্কে সঠিকভাবে নির্দেশনা অনুসরণের জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সরকার দেশকে এই প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে মুক্ত রাখতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস এমনভাবে ছড়িয়ে পড়েছে যে এখানে হয়তো মৃতের সংখ্যা তেমন না, কিন্তু আতঙ্ক অনেক বেশি। কাজেই এই প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে দেশকে মুক্ত রাখতে এই সংক্রান্ত নির্দেশনা সঠিকভাবে অনুসরণ করতে হবে। ১১৪টির বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) বাংলাদেশে যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, সে জন্য সরকার সর্বাত্মকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সবাইকে বলব, সচেতন থাকা দরকার। আমরা সব সময় বুলেটিন দিয়ে যাচ্ছি। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর)  মাধ্যমে সব সময় জানানো হচ্ছে, সেগুলো অনুসরণ করবেন। নিজেরা সচেতন থাকব, অপরকে সচেতন করব।’ তিনি বলেন, ‘এই সচেতনতামূলক যে সমস্ত নির্দেশনা আসছে, সেটা সবাইকে মেনে চলতে হবে। তাহলেই আমরা কিন্তু আমাদের দেশকে ভাইরাসের আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে পারব।’

প্রধানমন্ত্রী বিদেশ থেকে আগত ব্যক্তিদের নিজস্ব উদ্যোগেই নিজেদের ‘কোয়ারেন্টাইনে’ থাকারও পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, ‘যাঁরা বিদেশ থেকে আসবেন, তাঁরা নিজেরা অন্তত বাইরের কারও সঙ্গে মিশবেন না এবং কিছুদিন অপেক্ষা করে দেখবেন এই ধরনের রোগের কোনোরকম লক্ষণ দেখা যায় কি না, খেয়াল করবেন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হবেন।’

দেশে ইতিমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং চিকিৎসাধীনদের স্বাস্থ্যের উন্নতির তথ্য তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ইতিমধ্যে আমরা বিদেশ থেকে আসা আমাদের দুজন নাগরিককে শনাক্ত করেছি (করোনাভাইরাসে আক্রান্ত)। তাদের চিকিৎসা করা হয়েছে, তারা মোটামুটি ভালো এবং একজন সংক্রমিত হয়েছিল। এ ছাড়া বাকি সবাই ভালো আছে।’