পরস্পর বিরোধী তথ্য দিচ্ছেন মোদী আর শাহ, মিথ্যাবাদী কে?

Uncategorized Tamalika Basu ২২-ডিসে.-২০১৯

কলকাতা : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নাকি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ মিথ্যা বলছেন?‌ কারণ, তাদের নির্বাচনী ইশতেহার থেকে গরমাগরম টুইট বা ইন্টারভিউ, অমিত শাহ থেকে রাজ্য নেতা দিলীপ ঘোষ পর্যন্ত বারবার বলেছেন এনআরসি হবেই।

অথচ আজ নরেন্দ্র মোদি বললেন, এনআরসি নিয়ে নাকি কোনো আলোচনাই হয়নি এবং ভারতের কোথাও আটক কেন্দ্র নেই। রবিবার রামলীলা ময়দানে দাঁড়িয়ে মোদি বলেন, মিথ্যা কথা বলছেন বিরোধীরা। গোটা দেশে এনআরসি চালু হওয়ার কথা বিরোধীরাই ছড়াচ্ছেন রাজনৈতিক ফায়দা তোলার জন্য। আমি দেশের ১৩০ কোটি ভারতবাসীকে জানাতে চাই, ২০১৪ সালে প্রথমবার ক্ষমতায় আসার পর এখন পর্যন্ত কোথাও কখনো এনআরসি নিয়ে আলোচনা হয়নি। ভারতের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে শুধু আসামেই এনআরসি করতে হয়েছে।

চলতি বছরের ১১ এপ্রিল বিজেপি এক টুইট বার্তায় জানায়, সারা দেশে এনআরসি চালু করা হবে। বৌদ্ধ, হিন্দু এবং শিখ বাদে অন্য সকল ধর্মের অনুপ্রবেশকারীদের দেশ থেকে তাড়ানো হবে। সম্প্রতি সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে উত্তাল ভারত। সেই ইস্যুতে সাধারণ মানুষের মধ্যে এনআরসির আতঙ্ক আরো চরমে ওঠে। চাপে পড়ে তড়িঘড়ি সেই টুইট সরিয়ে দেওয়া হয় বিজেপির টুইটার থেকে।