শরিয়াহ সম্মত ওয়েব পরিবেশ. আরওসন্ধানকরুন

পশ্চিমবঙ্গে আম্পান কেড়ে নিল ৭২ প্রাণ

বিশ্ব Tamalika Basu ২১-মে-২০২০
ID 183297097 © Tapan Newpane | Dreamstime.com

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে সুপার সাইক্লোন আম্ফানে ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে।  বৃহস্পতিবার (২১ মে) দুপুরে নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, এ পর্যন্ত কলকাতায় ১৫ জন, সুন্দরবনে ৪ জন, হুগলিতে ৩ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ১৭ জনের মৃত্যুর খবর এসেছে। বাড়িঘর, গাছ পড়ে, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে রাজ্যে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে। মৃতদের পরিবারকে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা করে সাহায্য করা হবে।

তিনি আরও জানান, ঘূর্ণিঝড়ে পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ১ লাখ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। দক্ষিণ ও উত্তর ২৪ পরগনা প্রায় ধ্বংস হয়ে গেছে। অনেক জায়গায় বিদ্যুৎ নেই।

তিনি আরো বলেন, প্রাণহানির সংখ্যা সবচেয়ে বেশি দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলায়। নিহতরা কেউ গাছ বা বৈদ্যুতিক পোস্ট চাপা পড়ে, কেউ পানিতে ডুবে কেউ বাড়ির ছাদ ধসে, কেউ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন।

আম্পান মোকাবেলাকে রাজনৈতিক দৃষ্টিতে না দেখতে কেন্দ্রের প্রতি মমতার আহ্বান। বুধবার রাতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সচিবালয় নবান্নে সংবাদ সম্মেলন করে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সহযোগিতা চেয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন : আজ চোখের সামনে যে ধ্বংস দেখলাম, এই তাণ্ডব থেকে রেহাই পেতে গেলে মানুষকে সাথে নিয়ে লড়াই করতে হবে।কেন্দ্রের কাছে আবেদন, রাজনীতির দৃষ্টিতে না দেখে বিষয়টি মানবিকতা দিয়ে দেখুন।

পশ্চিমবঙ্গকে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় সবধরনের সহযোগিতার আশ্বাস কেন্দ্রের সুপার সাইক্লোন আম্পানে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আজ রাজ্যটিকে ও সেই সঙ্গে পার্শ্ববর্তী ওড়িশাকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে ১৯৯৯ সালের পর বঙ্গোপসাগরের তৈরি হওয়া প্রথম ‘সুপার সাইক্লোন’ এই আম্পান। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড়টি  পশ্চিমবঙ্গের হাজার হাজার ঘর-বাড়ি ধ্বংস করে দিয়েছে। বঙ্গোপসাগরে উৎপন্ন ঘূর্ণিঝড় আম্পানের দাপটে ঘণ্টায় ১৮৫ কিমি বেগে ঝড়ো হাওয়া প্রবেশ করে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলীয় অঞ্চলে।

কিছুবলারথাকলে

যোগাযোগকরুন