প্রখর বুদ্ধির অধিকারী সম্মান পেল তিন বছরের মুসলিম খুদে

Tamalika Basu ২২-জানু.-২০২০
Muhammad Haryz Nadzim
Caliper ruler measuring a human brain. Over the table a IQ Test in a concept of the human intelligence.

লন্ডন: তিনবছর বয়সী মালয়েশিয়ান শিশু  মুহম্মদ হারিজ নাদজিম মোহাম্মদ হিলমি নাইম আন্তর্জাতিক হাই আইকিউ সোসাইটির সর্বকনিষ্ট সদস্য মনোনীত হয়েছে। ব্রিটেনের  সবচেয়ে বুদ্ধিধারী ব্যক্তিদের সোসাইটি মেনসা। বুদ্ধ্যঙ্ক বা আইকিউ- এর জোরে এই সম্প্রদায়ে প্রবেশ করা যায়।

হারিজ নাদজিম মোহাম্মদ হিলি নাইম, তার বাবা-মায়ের সাথে ব্রিটেনের ডারহ্যাম কাউন্টিতে থাকে। ব্রিটেনের স্ট্যানফোর্ড বিনেট পরীক্ষায় (আইকিউ পরিমাপ করার জন্য দক্ষতার মূল্যায়ন )১৪২ স্কোর  করার পর তাকে মেনসা ইউকে তাদের সদস্যপদ প্রদান করে।

নাঈমের ইঞ্জিনিয়ার পিতামাতার কাছে এটি অবাক বিস্ময়। ছেলের এমন মেধা তাদের বিস্মিত করেছে। শিশুটির এ স্কোর তাকে অনেক উচ্চতায় তুলে এনেছে। পিতা মাতা হিলমি নাঈম ও আনিরা আসিকিন দু’জনেই প্রকৌশলী। তারা প্রত্যাশা করেননি এমন একটি ফলাফলের।

মা আনিরা বলেন, ‘নার্সারি থেকেই তার মেধার পরিচয়  ঘটে। সে স্কুলের পাঠ্যবই বাদ দিয়ে আরো অনেক বই সম্পর্কে জানতো। মূলত সে স্কুলের পাঠ্যবই ছাড়াও অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছিল। তার প্রিয় গল্পের বইগুলো ছিল তার মুখস্থ। তার এ অস্বাভাবিকতায় তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হলে তাকে চিকিৎসক জানান, এটি ঐশ্বরিক দান। কচিৎ এ ধরনের মানুষ দেখা যায়। আমরা তাকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবো। নাঈম নিজেই জানে না কি পরিমাণ মেধাবী সে।’

নাঈমের মা জানিয়েছেন সে প্রথম শব্দ বলে সাতমাস  বয়েসে। দুই বছর বয়েস থেকে গল্পের বই পুরো পড়তে পারতো। সেই গল্পগুলি মনে রেখে পড়ে বাবা মাকে শোনাতেও পারতো। তার এই অন্যরকম ক্ষমতা দেখে বাবা মা প্রথমে সন্দিহান হয়ে পড়েন। কিন্তু তাঁরা পরে দেখেন, শুধু পড়াশোনা নয়, ছবি আঁকা, রঙ করতেও তাঁদের ছেলের তীব্র আগ্রহ।