SalamWebToday নিউজলেটার
Sign up to get weekly SalamWebToday articles!
আমরা দুঃখিত কোনো কারণে ত্রুটি দেখা গিয়েছে:
সম্মতি জানানোর অর্থ, আপনি Salamweb-এর শর্তাবলী এবং গোপনীয়তার নীতি মেনে নিচ্ছেন
নিউজলেটার শিল্প

বদহজম থেকে মুক্তি দেবে জিরা ও পুদিনাপাতার মিশ্রণ

স্বাস্থ্য ২১ জানু. ২০২১
মতামত
বদহজম
© Sergey Shibut | Dreamstime.com

হয়তো আপনার কোনও পছন্দের রেস্তোরাঁয় খেতে গেলেন, মনের আনন্দে পেট পুরে খেলেন। কিন্তু বাড়ি ফিরেই দেখলেন বুকে ব্যথা হতে শুরু করল, সঙ্গে প্রবল ঢেঁকুর, বমি! কিংবা সকালে নাস্তা করে কাজে যেতে না যেতেই দেখলেন সে নাস্তা হজম হওয়ার বদলে অ্যাসিডিটি হয়ে গেল! সঙ্গে-সঙ্গে আপনাকে ছুটতে হল ওষুধের দোকানে। অ্যাসিডিটি, গ্যাস, বদহজম আমাদের অনেকেরই নিত্যদিনের সমস্যা। এমনিতেই ফাস্ট ফুড, জাঙ্ক ফুড বা হোটেল-রেস্তোরাঁর খাবার হজম হতে খানিক সমস্যা হয়। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রেই আবার দেখা যায় হাজার নিয়ম মেনে, সময় মেপে খেলেও বদহজম যেন তাঁদের পিছু ছাড়তেই চায় না।

কাজে লাগান জিরা-পুদিনার ঘরোয়া টোটকা

এমনিতে বদহজম হলে বা হজমের কোনওরকম সমস্যা হলে সহজ সমাধান হল ওষুধের দোকানে গিয়ে কোনও হজমের বা অ্যাসিডিটির ওষুধ কিনে খেয়ে নেওয়া। কিন্তু যখন-তখন এরকম ওষুধ কিনে খেলে অনেকসময়েই হিতে বিপরীত ঘটনা ঘটতে পারে। তার চেয়ে আপনি কিন্তু খুব সহজে এবং কম খরচে, বিনা ওষুধেই এই বদহজমের সমস্যার সমাধান করতে পারেন, তাও আবার আপনার ঘরে মজুত টোটকা দিয়েই। এরজন্য দরকার শুধুমাত্র অল্প একটু জিরা আর পুদিনা পাতা!

বদহজম দূর করতে জিরা অব্যর্থ

জিরা আমাদের রান্নাঘরের একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান। হজমের সমস্যায় জিরাকে অনেকেই ঘরোয়া টোটকা হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন। এশিয় রান্নায়, বিশেষ করে মধ্য এশিয়া, ইরান, আরব, ভারতীয় উপমহাদেশে রান্নায় মশলা হিসেবে জিরা ব্যবহারের ইতিহাস সুপ্রাচীন। ভারতীয় উপমহাদেশে প্রাচীনকাল থেকেই নানা রোগের ক্ষেত্রে আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় জিরাকে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে ব্যবহার করা হত। এতে প্রচুর পরিমাণে প্রাকৃতিক তেল থাকে যা মুখগহ্বরে উপস্থিত লালাগ্রন্থিকে উদ্দীপিত করে ও লালারস নিঃসরণে সাহায্য করে। এতে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীর থেকে ক্ষতিকর ফ্রি র‍্যাডিকাল বের করে দেয়। জিরা জলে ভিজিয়ে খেলে তা অ্যাসিডিটি, বুক-পেট জ্বালা, পেট ফোলার ক্ষেত্রে অব্যর্থ সমাধান হিসেবে কাজ করে, এবং এতে থাকা ফাইবার ও খনিজ উপাদান বদহজমের সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

এছাড়া এটি ব্যথা উপশমকারী হিসেবে কাজ করে ও পেট ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। আমরা খাবার খাওয়ার পর আমাদের মুখগহ্বর বা পাকস্থলীতে ক্ষরিত নানারকম উৎসেচক সেই খাবার হজম করতে সাহায্য করে। বদহজমের সময় জিরা সেই উৎসেচক ও পাকস্থলী থেকে পিত্তরস ক্ষরণে সহায়তা করে এবং পিত্তরসের সহায়তায় ফ্যাট পরিপাক করে হজমপ্রক্রিয়াকে তরান্বিত করে। এছাড়া জিরা অম্ল নিষ্ক্রিয়কারী হিসেবে কাজ করে, প্রদাহ কমায়, ফলে অ্যাসিডিটির সমস্যায় জিরা পেটকে ঠান্ডা রাখে। শরীর থেকে টক্সিন উপাদান বের করে জিরা শরীরকে ঝরঝরে রাখে ও হজমক্ষমতা বৃদ্ধি করে। আর মেটাবলিজম ঠিক রাখে বলে ওজন কমাতেও জিরাকে অনেকে ব্যবহার করে থাকেন।

বদহজমে কাজে লাগে পুদিনাপাতা

জিরার মতোই পুদিনাপাতাও বদহজমের অব্যর্থ ওষুধ বলে পরিচিত। অনেক হজমের ওষুধেই উপাদান হিসেবে মিন্ট বা পিপারমিন্ট অয়েল থাকে। পুদিনাপাতা শরীরকে ঠান্ডা করে বলে গরমকালে শরীর ঠান্ডা রাখতে অনেকেই পুদিনার শরবত, রায়তা খেয়ে থাকেন। পুদিনা পাতায় প্রচুর পরিমাণে ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট, ভিটামিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও খনিজ উপাদান থাকে। এর অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি গুণ মাথা ধরা, সর্দিকাশি ইত্যাদি কমানোর পাশাপাশি বদহজম কমাতেও দারুণ কাজে লাগে। পেটখারাপ, বদহজমের সমস্যা, গ্যাস, অম্বলের ক্ষেত্রে বহু প্রাচীনকাল থেকেই পুদিনাপাতা ব্যবহার করা হত। পুদিনাপাতায় থাকে মেন্থল, যা অ্যান্টিসেপ্টিক, এবং এর অ্যান্টি-ব্যাক্টেরিয়াল গুণ বদহজম, অস্বস্তি কমিয়ে পেটকে ঠান্ডা করে। এছাড়া পুদিনাপাতায় কিছু সক্রিয় উৎসেচক থাকে, যা পিত্তরস ও পিত্তলবণের ক্ষরণে সহায়তা করে ও পরিপাক ক্রিয়া দ্রুত করে। পুদিনায় থাকা মেন্থল পেটের নরম পেশিকে সক্রিয় করে অপাচ্য খাবার তাড়াতাড়ি পরিপাকে সহায়তা করে। পুদিনাপাতা গ্যাস কমাতেও সাহায্য করে।

সহজে বানান জিরা ও পুদিনার মিশ্রণ

বদহজম থেকে মুক্তি পেতে জিরা ও পুদিনাপাতা দু’টিকেই আলাদা-আলাদা হিসেবে ব্যবহার করা গেলেও, এর মিশ্রণ কিন্তু কাজ দেয় আরও দ্রুত। তাই হজমের সমস্যা থেকে জলদি মুক্তি পেতে জিরা ও পুদিনাপাতা দিয়ে খুব সহজেই বানিয়ে নিতে পারেন ঘরোয়া টোটকা। রইল তার পদ্ধতি।

কী কী লাগবে?

১ চা চামচ জিরা ভেজে গুঁড়ো করে নেওয়া

পুদিনাপাতা ৮-৯টা কুচোনো

সৈন্ধব লবণ, পাতিলেবুর রস, মধু স্বাদমতো

পানি এক গ্লাস

সোডা প্রয়োজনমতো (সোডার বদলে পানিও দিতে পারেন)

কীভাবে বানাবেন?

এক গ্লাস পানিতে ভেজে গুঁড়ো করে রাখা জিরা ও কুচোনো পুদিনাপাতা দিয়ে ৫-১০ মিনিট ভাল করে ফুটিয়ে নিন। এরপর মিক্সারে একে করে বেটে নিন। এবার একটা বড় গ্লাসের ১/৪ অংশ জিরা-পুদিনার এই মিশ্রণ, সৈন্ধব লবণ, পাতিলেবুর রস, মধু দিয়ে মিশিয়ে নিন। তারপর বাকি অংশে সোডা/ জল দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিলেই তৈরি আপনার বদহজমের মুখরোচক ওষুধ। প্রয়োজন হলে ঠান্ডা করার জন্য বরফও দিতে পারেন। দেখবেন, হজমের যে-কোনও সমস্যায় জিরা ও পুদিনার এই মিশ্রণ আপনাকে দারুণ ফল দেবে।