বাংলাদেশে করোনায় একজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৪ জন মোট রোগী ১৪

Tamalika Basu ১৮-মার্চ-২০২০
Covid 19
ID 172493635 © Wanida Raungporn | Dreamstime.com

করোনায় বাংলাদেশে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স ৭০ এর বেশি ছিল। ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনিসহ শারীরিক নানা জটিলতায় ভুগছিলেন ছিলেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রফেরত আত্মীয়ের মাধ্যমে আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। একই সঙ্গে নতুন ৪ জনসহ এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে ১৪ জন। এদের মধ্যে ৩ জন চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন। এদিকে নতুন ৪ জন রোগীর মধ্যে ১ জন মহিলা, ৩ জন পুরুষ। এদের মধ্যে ১ জন আগের আক্রান্ত ইতালি ফেরত পরিবারের সদস্য। বাকীদের ২ জন ইতালি ফেরত প্রবাসী এবং ১ জন কুয়েত ফেরত প্রবাসী। বুধবার (১৮ মার্চ) সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান আইইডিসিআর পরিচালক প্রফেসর মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। আইইডিসিআর পরিচালক আরও জানিয়েছেন, প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে ৪২ জন এবং ১৬ জন রয়েছেন আইসোলেশনে। সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, বিশেষ সুরক্ষার মাধ্যমে আইইডিসিআর’র তত্ত্ববাবধানে মৃত ব্যক্তিক দাফন করা হবে।

আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, কোভিড-১৯ ছোঁয়াচে, কিন্তু মারাত্মক নয়। প্রতিরোধ বিষয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে চলার আহ্বান।

হাসপাতালে জ্বর, হাঁচি কাশির রোগী দেখছে না অনেক হাসপাতাল, ভোগান্তিতে পরছে অনেকেই এ বিষয়ে আইইডিসিআর বলেছে, হাসপাতাল ও ডাক্তারদের সাথে কথা বলে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। আইইডিসিআর পরিচালক জানান, দেশে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন নেই। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কিছু কিছু ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ঝুঁকি এড়াতে আইইডিসিআর’র তত্বাবধানে পরীক্ষা হবে।

প্রফেসর মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন না মানলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। সরকার আর সহানুভূতি দেখাবেবে না।এদিকে, দেশে ফেরা নিম্ন আদালতের ৩০ বিচারককে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ২ সপ্তাহের প্রশিক্ষণ শেষে অস্ট্রেলিয়া থেকে গত ১৫ মার্চ দেশে ফেরেন তারা। এ তথ্য জানিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়।

হোম কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে ঢাকা মেডিকেলের চার চিকিৎসককে। এছাড়া, স্লোভেনিয়া থেকে আসা ৪ জনকে হাজি ক্যাম্পে এবং মালয়েশিয়া ও দুবাই থেকে আসা দু’জনকে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।