মানুষের কারণে ৫০ বছরে সারা বিশ্বে বন্যপ্রাণী কমেছে ৭০ শতাংশ

বিশ্ব Tamalika Basu ১০-সেপ্টে.-২০২০
Bushfire
Bushfire IN Australia Forest Many Kangaroos And Other Animals Running Escaping To Save Their Lives, Evacuation destroyed silhouette.

সর্বনাশা পতনের দিকে বন্যজীবন, যা কমার কোনও লক্ষণ নেই। গত ৫০ বছরে বন্যপ্রাণীর সংখ্যা দুই তৃতীয়াংশেরও বেশি কমে গেছে। পরিবেশবাদী গ্রুপ ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ ফান্ড (ডব্লিউডব্লিউএফ) এক রিপোর্টে এ তথ্য জানিয়েছে।

বার্ষিক লিভিং প্ল্যানেট রিপোর্টে গ্রুপটি লিখেছে, মানুষের কারণে বন্যপ্রাণী বিপর্যয়ের মুখে। মানবজাতি প্রকৃতি এমনভাবে ধ্বংস করছে যা আগে কখনও দেখা যায়নি। বন জ্বালানো, সমুদ্রের অতিরিক্ত মাছ শিকার ও বন্য এলাকা ধ্বংসই এই পতনের কারণ।

চার হাজার প্রজাতির মেরুদণ্ডী প্রাণীর ওপর নজর রেখে এই লিভিং প্ল্যানেট সূচক তৈরি করেছে সংগঠনটি। ১৯৭০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ৬৮ শতাংশ বন্যপ্রাণী কমার পেছনে তারা বন উজার করে ফেলা ও কৃষি সম্প্রসারণকে সবচেয়ে দায়ী মনে করছে।

ডব্লিউডব্লিউএফ ইন্টারন্যাশনালের মহাপরিচালক মার্কো ল্যাম্বার্টিনি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘বন্যপ্রাণী দ্রুত কমে যাচ্ছে, ৩০ বছর ধরে আমরা এটা দেখছি এবং এটা চলছে বাজে একটা অবস্থার দিকে। ২০১৬ সালে আমরা ৬০ শতাংশ বন্যপ্রাণী কমার কথা বলেছিলাম, এখন বলছি ৭০ শতাংশের কথা।’

লন্ডনের জুওলোজি সোসাইটি ও ডব্লিউডব্লিউএফ ইন্টারন্যাশনালের সমন্বয়ে এই রিপোর্ট তৈরি হয়েছে। তারা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, প্রাকৃতিক আবাসস্থল ধ্বংস হতে থাকলে বন্যপ্রাণী ও মানুষের সংস্পর্শ আরও বাড়বে। এতে ভবিষ্যতে অতিমারির ঝুঁকি আরও বেড়ে যাবে।