‘মায়াবতী’ মুক্তি পাবে ১৩ সেপ্টেম্বর

সেন্স Omar Faruque ১২-সেপ্টে.-২০১৯

মুক্তির দিন চূড়ান্ত হলো ‘মায়াবতী’ চলচ্চিত্রের। ১৩ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ঢাকাসহ সারা দেশে মুক্তি পাবে ছবিটি। চলচ্চিত্রটিতে প্রথমবারের মতো নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। ছবিটি পরিচালনা করছেন অরুণ চৌধুরী। যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে আনোয়ার আজাদ ফিল্মস ও অনন্য সৃষ্টি ভিশন। আরও অভিনয় করেছেন ইয়াশ রোহান, ফজলুর রহমান বাবু, রাইসুল ইসলাম আসাদ, দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, আফরোজা বানু, অরুণা বিশ্বাস, তানভীর হোসেন প্রবাল, আগুনসহ অনেকে।

প্রায় ৮০০ নাটকের নির্মাতা অরুণ চৌধুরীর কাহিনি ও চিত্রনাট্যে গত বছর মুক্তি পেয়েছিল ‘আলতাবানু’ চলচ্চিত্রটি। আর এবছর মুক্তি পেতে যাচ্ছে নির্মাতার পরিচালনায় দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ‘মায়াবতী’। ২ ঘণ্টা ২০ মিনিট যা ১৪০ মিনিট ব্যাপ্তির এ ছবির গল্প গড়ে উঠেছে নারী পাচারকে ঘিরে। অরুণ চৌধুরী বলেন, মায়া নামের এক কিশোরী ছোটবেলায় তার মায়ের কাছ থেকে চুরি হয়ে যায়। পাচারকারীদের ফাঁদে পড়ে সে। তাকে দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে বিক্রি করা হয়। সেখানে মায়াকে ধীরে ধীরে গড়ে তোলেন সংগীতগুরু খোদা বক্স। ওদিকে মায়ার গানের প্রেমে পড়েন একজন ব্যারিস্টার। একসময় ভয়ংকর খুনের ঘটনায় জড়িয়ে পড়ে মেয়েটি। শুরু হয় নতুন গল্প। নতুন সংগ্রাম।

গল্পের প্রতি বিশ্বস্ততার কারণে দৌলতদিয়ার যৌনপল্লিতে শুটিং করেছেন এ ছবির শিল্পী ও কলাকুশলীরা। নবীন অভিনেতা ইয়াশ রোহান বলেন, ‘“স্বপ্নজাল” ছবির পর কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছি। তবে কোনো ছবির সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছিলাম না। “স্বপ্নজাল” ছবির “অপু” চরিত্রের পর “মায়াবতী”র “ইকবাল” আমার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র ও চরিত্র হিসেবে শতভাগ পারফেক্ট মনে হয়েছে। আমি মনে করি আমরা যেমন আনন্দ নিয়ে কাজটি করেছি, তেমনি দর্শকও আনন্দ নিয়ে ছবিটিকে গ্রহণ করবেন।’ জানা গেছে, সমাজের পারিপার্শ্বিক অবস্থা চিত্রায়িত হয়েছে এ চলচ্চিত্রে। নিটোল প্রেমের গল্পের পাশাপাশি পরিচালক অরুণ চৌধুরী এতে সমাজের নানা অসংগতি তুলে ধরেছেন।

‘স্বপ্নজাল’ ছবির নায়ক ইয়াশ রোহানের বিপরীতেও তিশার এটি প্রথম চলচ্চিত্র। ছবির চিত্রগ্রহণে ছিলেন তানভীর আনজুম। নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, দেশে মুক্তি পাওয়ার পর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ‘মায়াবতী’ ছড়িয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। সারা দেশে ছবিটি পরিবেশনার দায়িত্ব নিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।

Source: The Daily Bangladesh.

Photo: Collected