যুব বিশ্বকাপ ফাইনালে আজ মুখোমুখি ভারত-বাংলাদেশ

খেলাধূলা Tamalika Basu ০৮-ফেব্রু.-২০২০

একদলের লক্ষ্য, খেতাব ধরে রাখা। আর অন্যদলের লক্ষ্য, ইতিহাস গড়া। ভিন্ন লক্ষ্য নিয়েই আজ রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার পচেস্ট্রমে যুব বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ফাইনালে মাঠে নামছে টিম ইন্ডিয়া ও বাংলাদেশ। মাঠে নামার আগে রীতিমতো টগবগিয়ে ফুটছেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। যদিও ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, আজকের ফাইনালে প্রতিপক্ষের তুলনায় ধারে-ভারে অনেকটাই এগিয়ে জুনিয়র টিম ইন্ডিয়া।

চলতি যুব বিশ্বকাপে ক্রিকেট মহলকে চমকে দিয়েছে বাংলাদেশের জুনিয়র ক্রিকেটাররা। টিম টাইগাররা ফাইনালে পৌঁছবে, তা আশা করেননি কোনও ক্রিকেট পণ্ডিতই। অথচ অসাধ্যসাধন করেছে আকবর আলী-মাহমুদুল হাসান জয়রা। সেমিফাইনালে অনায়াসে কিউইদের হারিয়ে ইতিহাস গড়েছেন তাঁরা। এই প্রথম যে কোনও ধরনের বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠল টিম টাইগার। সিনিয়র টাইগাররা যা করে দেখাতে পারেনি এবার তা করে দেখিয়েছে জুনিয়ররা। ফাইনালে ভারতকে হারাতে পারলেই প্রথমবার বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পাবে বাংলাদেশ।

যুব বিশ্বকাপে ভারতের পারফরম্যান্স অবশ্য চোখ ধাঁধানো। ১৯৯৮ সালে প্রতিযোগিতা শুরু হওয়ার পরে এখনও পর্যন্ত চারবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জুনিয়র টিম ইন্ডিয়া। ২০০০ সালে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। পরে ২০০৮, ২০১২ ও ২০১৮ সালে ফের ট্রফি জিতেছিল ভারতের জুনিয়র ক্রিকেটাররা। তাছাড়া ২০০৬ ও ২০১৬ সালে ফাইনালে উঠেছিল জুনিয়র টিম ইন্ডিয়া। তবে দু’বারই প্রতিপক্ষ ছিল ওয়েস্টইন্ডিজ ও পাকিস্তানের মতো শক্তিশালী দল। কিন্তু এবার ফাইনালে বাংলাদেশের মতো দুর্বল দল পাওয়ায় জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী জুনিয়র টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক প্রিয়ম গর্গ।

তবে শক্তিশালী প্রতিপক্ষ ভারতকে মোটেই ভয় পাচ্ছেন না টিম টাইগারের অধিনায়ক আকবর আলী। প্রতিযোগিতায় গ্রুপ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা ও সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে দলের সদস্যরা আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে রয়েছেন বলে দাবি করেছেন তিনি। টিম টাইগারের অধিনায়কের কথায়, ‘আমরা এই ফাইনালকে (অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ) আর পাঁচটা ম্যাচের মতোই নিচ্ছি। ফাইনাল ম্যাচ খেলার জন্য ছেলেরা সত্যি অধীর হয়ে আছে। ঘরে ট্রফি নেওয়ার জন্য এটা আমাদের জন্য খুবই ভাল সুযোগ।