লিবিযায় বাংলাদেশি হত্যার নিন্দা মোমেনের

বিশ্ব Tamalika Basu ২৯-মে-২০২০

উত্তর আফ্রিকার দেশ লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ মোট ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা করেছে স্থানীয় এক মানবপাচারকারীর পরিবারের সদস্যরা। বাকি চারজন আফ্রিকারই নাগরিক। লিবিয়ার জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে বলেছে, এই ঘটনায় আরও ১১ জন বাংলাদেশি মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

দেশটির ইংরেজি গণমাধ্যম দ্য লিবিয়া অবজারভার বৃহস্পতিবার (২৮ মে) রাত পৌনে নয়টার দিকে তাদের ফেসবুক পেজে জানায়, নিহত বাংলাদেশিরা মিজদা শহরে ওই মানবপাচারকারীর জিম্মায় ছিলেন। তাকে আগেই হত্যা করা হয়।

জানা গেছে, অভিযুক্ত পাচারকারী মঙ্গলবার রাতে অভিবাসীদের হাতে কোনোভাবে খুন হন। এরপর তার সহযোগী এবং আত্মীয়স্বজনেরা জিম্মি অভিবাসীদের ক্যাম্পে নির্বিচারে গুলি চালালে ঘটনাস্থলে ২৬ জন বাংলাদেশিসহ মোট ৩০ জন মারা যান।

ঘটনাকে দুঃখজনক বলে উল্লেখ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। তিনি বলেন, দুঃখজনকভাবে ২৬ জন নিহত, ১১ জন আহত। পাচারকারীরা ত্রিপলি থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে তাদের হত্যা করেছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ধারণা করা হচ্ছে অন্য কোনো দেশে তাদের পাচার করা হচ্ছিল। পথিমধ্যে তাদের সাথে কোনো ঝামেলা হওয়ায় পাচারকারীরা তাদের মেরে ফেলেছে। দূতাবাসের পক্ষ থেকে একজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে এ ঘটনায় হত্যাকারীদের শাস্তি চেয়েছে বাংলাদেশ। এ বিষয়ে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ভারবাল নোট দিয়েছে লিবিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাস।