শর্তসাপেক্ষে সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি পেল বাংলাদেশিরা

বিশ্ব Tamalika Basu ০৩-সেপ্টে.-২০২০
dreamstime_s_110701268

অবশেষে সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন বাংলাদেশসহ ২৫ দেশের প্রবাসীরা। করোনা সংক্রমণ অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আসায় সৌদি আরবে ফিরে যেতে প্রবাসীদের আর কোনো বাধা থাকছে না।

সৌদি সিভিল এভিয়েশন জেনারেল অথরিটি কিছু শর্তসাপেক্ষে এসব দেশের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে। সৌদি সরকার নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেট বুধবার (৩ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

তবে কবে থেকে সৌদিতে প্রবেশ করা যাবে তার নির্দিষ্ট তারিখ এখনো জানানো হয়নি। এই ২৫ দেশের তালিকায় বাংলাদেশের নাম থাকলেও; নেই পার্শ্ববর্তী ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা। এছাড়া নেই মালদ্বীপ, আফগানিস্তানের নামও।

অনুমতি পাওয়া দেশগুলো হলো- সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত, ওমান, বাহরাইন, মিসর, লেবানন, মরক্কো, তিউনিসিয়া, চীন, যুক্তরাজ্য, ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, অস্ট্রিয়া, তুরস্ক, গ্রিস, ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, সুদান, ইথিওপিয়া, কেনিয়া, নাইজেরিয়া ও ইন্দোনেশিয়া।

যেসব শর্ত পূরণ করে এই ২৫ দেশের নাগরিকরা সৌদি আরবে ফিরে যেতে পারবেন-

১. সৌদি আরব ভ্রমণ করতে হলে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে একটি ফরম পূরণ করে তার মধ্যে বিস্তারিত তথ্য লিখে নিচে স্বাক্ষর করতে হবে এবং আসার সময় এয়ারপোর্টে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত ডেস্কে জমা দিতে হবে।

২. ভ্রমণ করার সাতদিন আগে থেকে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। মূলত পিসিআর দেয়ার চারদিন আগে থেকে এবং পিসিআর রিপোর্ট পাওয়ার তিনদিন পর পর্যন্ত।

৩. সৌদি আরবের টাটামন এবং তাওয়াক্বালনা অ্যঅপস ডাউনলোড করে নিবন্ধন করতে হবে।

৪. অবশ্যই আসার আট ঘণ্টার মধ্যে টাটামন অ্যাপের মাধ্যমে বাসার অবস্থান নির্ধারণ করতে হবে।

৫. কোভিড-১৯ এর লক্ষণ সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। যদি কোনো লক্ষণ দেখা দেয় তাহলে সরাসরি ৯৩৭ নম্বরে ফোন করতে হবে অথবা সাধারণ স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গিয়ে চিকিৎসা নিতে হবে।

৬. টাটামন অ্যাপের মাধ্যমে প্রতিদিনের স্বাস্থ্যের অবস্থা জানাতে হবে এবং কোয়ারেন্টাইন থাকাকালীন সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত ফরম অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।