‘শান্তি ও ভ্রাতৃত্ব বজায় রাখুন’, দিল্লির হিংসা নিয়ে দেশবাসীকে বার্তা উদ্বিগ্ন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর

Tamalika Basu ২৬-ফেব্রু.-২০২০
CAA Protest
ID 169091659 © Adnan Mukri | Dreamstime.com

প্রশ্ন উঠেছিল তিনি চুপ কেন? ভারত জ্বলছে রবিবার রাত থেকেই তবুও তাঁর কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। সেই তিনি, দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ, বুধবার মুখ খুললেন দিল্লির হিংসায় ২১ জনের মৃত্যুর পর। তিনি দেশবাসীর কাছে শান্তি বজায় রাখার আবেদন করেন।

বুধবার সকালে দিল্লির হিংসাশ্রয়ী আন্দোলনে কারফিউ জারি হয় ৪ জায়গায়। সেনা নামানো নিয়ে তরজা শুরু হয় কেজরিওয়াল ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে, আসরে নামেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। এরপর টু্ইটে নরেন্দ্র মোদি লেখেন, “দিল্লির বিভিন্ন প্রান্তের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছি। শান্তি ও সহাবস্থান বজায় রাখতে দিল্লি পুলিশ ও অন্য সংস্থাগুলি একত্রে কাজ করছে। শান্তি ও ভ্রাতৃত্ববোধ ভারতের সংস্কৃতির অধীনে। ভারতীয় সকল ভাইবোনেদের শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানাই।”

এদিন সকালেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল দিল্লিতে সেনা নামিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার আবেদন করেন। টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী জানান, “দিল্লির একাধিক মানুষের সঙ্গে কথা হয়েছে। রাজধানীর বেশিরভাগ এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আমার বিনিত আবেদন আপনি দিল্লিতে সেনা মোতায়েন করুন। পরিস্থিতি ক্রমশ দিল্লি পুলিশের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। দিল্লির ৪টি জায়গা ছাড়াও বাকি কিছু জায়গাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সেনার প্রয়োজন।”