শৈত্য প্রবাহ আর দুদিন, হাসপাতালে বাড়ছে রোগী, সিলেটে শীতবস্ত্র বিতরণ

Uncategorized Tamalika Basu ২০-ডিসে.-২০১৯

সিলেট: সমাজে শীতার্ত, অসহায় ও দরিদ্র মানুষদের হাড় কাঁপানো শীতের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব করতে তাদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘কিন’। প্রতিবছরের মতো এবারও আয়োজন করেছে ‘কিন’ শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচি-১৯’। শুক্রবার সকালে সিলেটের কেওড়াছড়া চা বাগানের ১০৪ জন শ্রমিকের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) ‘কিন’ স্কুলের ৯০ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণের পাশাপাশি প্রত্যেককে শীতের সুরক্ষার জন্য ভেসলিন বিতরণ করা হয়।

অন্যদিকে, শৈত্য প্রবাহের মধ্যে দেশের হাসপাতালগুলোতে তিন দিনে প্রায় ছয় হাজার ডায়রিয়ার রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ৭২ ঘণ্টায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে পাঁচ হাজার ৯০৫ জন হাসপাতালে গিয়েছেন, যার মধ্যে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসা নেন দুই হাজার ৭ জন। হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশন অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের সহকারী ডা. আয়শা আক্তার বলেন, শীতের কারণে নানা রোগে ভুগছেন মানুষ। জনগণকে একটু বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। গত ২৪ ঘণ্টায় শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫৩ জন; ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৭ জন; জণ্ডিস, আমাশয়, চোখের প্রদাহ, চর্মরোগ, জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২১১ জন।

বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শৈত্যপ্রবাহ অন্তত আরও দুই দিন চলবে। রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, যশোর ও চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলের উপর দিয়ে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে চূয়াডাঙ্গায় ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এসময় ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।