সর্দি, কাশি উপশমে আদার মোরব্বা

Sweet dried Ginger cubes

শীতকালে গরম কফির সঙ্গে ফ্রুট কেক খেতে খেতে মিষ্টি এই খাবারটি আস্বাদ অনেকেই পেয়েছেন। চেরি, ড্রাই ফ্রুটস এবং কাজুবাদামের সঙ্গে কেকের মধ্যে ‘মোরব্বা’ না থাকলে যেন কেকের আসল স্বাদটাই ঠিক জমে না। শুধুমাত্র কেকেই নয়, মিষ্টি পাউরুটি কিংবা বেকারির অন্যান্য বিভিন্ন জিনিস প্রস্তুত করতেও মোরব্বা ব্যবহার করে থাকে। মোরব্বা অনেক নামে পরিচিত যেমন- মুরব্বি, মুরব এবং মোরাব্বা ইত্যাদি। একঅর্থে এই প্রতিটি শব্দই ‘ফল সংরক্ষণ’-কেই নির্দেশ করে। এই প্রসঙ্গে বলা যায় যেহেতু বিভিন্ন ফল এবং সবজিকে উপকরণ হিসেবে ব্যবহার করে মিষ্টিজাতীয় এই পদটি ব্যবহার করা হয় তাই এই প্রকারের নামকরণ একেবারে যথার্থ।

খুব সাধারণ এটি বানানোর প্রক্রিয়া। ফল, চিনি এবং বিশেষ কিছু মশলা দিয়ে রকমারি ‘মোরব্বা’ তৈরি করা হয়। মধ্যপ্রাচ্য, মধ্য এশিয়া, দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিণ ককেশাসের বিভিন্ন প্রদেশে মোরব্বা অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি মিষ্টান্ন পদ। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে উপমহাদেশের বিভিন্ন প্রদেশেও। বিভিন্ন খাবারেও বেশ স্বচ্ছন্দে মিষ্টির বিকল্প রূপে ভাবা হয়ে থাকে এই মোরাব্বাকে।

মোরাব্বার রয়েছে বিভিন্ন আয়ুর্বেদিক ঔষধি বৈশিষ্ট্য। আদা দিয়ে প্রস্তুত মোরব্বা সর্দি, কাশি উপশমের ক্ষেত্রেও বিশেষভাবে সাহায্য করে থাকে। আদা, চিনি দিয়ে প্রস্তুত এই মোরব্বা দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে যেমন তামিলনাড়ু, কেরল, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্ণাটকে বিশেষভাবে জনপ্রিয়।

বিশ্বব্যাপী মোরব্বার রকমফের

শুধুমাত্র আদা দিয়েই নয়, ক্ষেত্রবিশেষে ফল দিয়েও প্রস্তুত করা হয় মোরব্বা। দক্ষিণ ককেশাসে প্রস্তুত মোরব্বার কথা এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করতে হবে। স্ট্রবেরি এবং চেরি দিয়ে এই মোরব্বা তৈরি করা হয়। আবার আজারবাইজানেরা অতিথি আপ্যায়নের ক্ষেত্রে অনেক সময়েই এই মোরব্বা পরিবেশন করে থাকেন। বলা যেতে পারে এটি তাদের অন্যতম প্রিয় মিষ্টির পদ। তাঁরা অনেকসময়েই ভিটামিন সি সমৃদ্ধ স্থানীয় ফল ব্যবহার করে মোরব্বা তৈরি করে থাকেন, যা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতেও বিশেষভাবে সাহায্য করে।

মোরব্বা নিয়ে অনেক কথা হল… কিন্তু আপনারা কি কেউ ভ্যারেনআই (Varenye)-এর নাম শুনেছেন? অনেকে হয়তো শুনেছেন আবার অনেকেই হয়তো শোনেনি। এটি হল একধরনের মোরব্বাই। পশ্চিমি দেশগুলোতে বিশেষ করে রাশিয়া, ইউক্রেনে মোরব্বা এই নামেই বেশি পরিচিত।

সর্দি, কাশি উপশমে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে মোরব্বা যেহেতু বিশেষভাবেই কার্যকরী তাই বাড়িতেই তৈরি করে ফেলুন আদার মোরব্বা।

আপনাদের জন্য রইল প্রয়োজনীয় রেসিপি

উপকরণ : ১ কেজি কাঁচা আদা, চিনি ১/২ কাপ, মধু ২ কাপ, পানি ১ কাপ, লেবুর রস ১ চা-চামচ। প্রণালী- প্রথমে আদাগুলোকে ভাল করে ধুয়ে নিন। এরপর মোটামুটিভাবে কিউবের আকারে কেটে নেওয়ার চেষ্টা করুন। এরপরে একটি পাত্রে মধু এবং পানি নিন। কিউব আকৃতির কেটে নেওয়া আদার টুকরোগুলোকে ওই পাত্রের মধ্যে রাখুন। আদার টুকরোগুলো পাত্রে রাখার আগে ভাল করে দেখে নেবেন যাতে পানি এবং মধু ভালভাবে মিশে যায়। এরপর ওই মিশ্রণে ভাল করে আদা সেদ্ধ করার চেষ্টা করুন।

আদা সেদ্ধ এবং একইসঙ্গে পাত্রের পানি শুকিয়ে গেলে একটা আলাদা পাত্র নিন এবং আদার কিউবগুলোকে একটা অপরটার উপরে রাখুন। এই সময়ে একটা জিনিস অবশ্যই খেয়াল রাখবেন পাত্রের মধ্যে আদার টুকরোগুলো সেদ্ধ হয়ে যাওয়ার সময়েই যেন মধুর শিরা আদার টুকরোতে পুরোপুরি শুষে যায়। এরপর অন্য আরেকটি পাত্রে চিনি নিন। চিনির গুড়ো মিহি হওয়া প্রয়োজন। এই মিহি চিনির গুড়োর উপরে আদার কিউবগুলোকে ভাল করে এদিক-ওদিক করে মিশিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করুন। এইভাবেই পুরো প্রক্রিয়াটি হয়ে যাবে। আদা দিয়ে তৈরি এই মোরব্বাকে আপনি প্রায় ৬ মাস মতো সংরক্ষণ অবশ্যই করতে পারবেন।