সিরিয়ার যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু জার্মানিতে

বিশ্ব Tamalika Basu ২৪-এপ্রিল-২০২০
Turkish Military Strikes Airport in Syria
ID 45083723 © Fatih Polat | Dreamstime.com

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে সিরিয়ার ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের পক্ষের দুই নির্যাতনকারীর বিচার শুরু হয়েছে জার্মানিতে। এই দুজনের মধ্য একজনকে বহু নিরীহ মানুষকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত করা হয়েছে। সিরিয়ার যুদ্ধে অপরাধের দায়ে বিশ্বে এটাই প্রথম বিচার। বৃহস্পতিবার রাইন নদীর তীরে কোবলেঞ্ছ শহরে অবস্থিত আঞ্চলিক আদালতে সিরিয়ার শাসক বাশার আল-আসাদের সন্দেহভাজন গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হয়। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় শাসকদের হয়ে নির্যাতনে জড়িত থাকার অভিযোগে সিরিয়ার এই দুই নাগরিককে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এই দুই যুদ্ধাপরাধী জার্মানিতে এসে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী হয়েছিলেন। জার্মান সরকারের রাষ্ট্রীয় কৌঁসুলিদের করা যুদ্ধাপরাধের অভিযোগের জন্য এই দুজনকে এখন আদালতে জবাবদিহি করতে হবে। সরকারি কৌঁসুলিরা বলেছেন, সিরিয়ার যুদ্ধাপরাধের দায়ে বিশ্বে এটাই প্রথম বিচারপ্রক্রিয়া।

জার্মান আইনজীবী ফোরামের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই মুহূর্তে জার্মানিজুড়ে শতাধিক মানবতাবিরোধী অপরাধের ঘটনার তদন্ত চলছে। এই মানবতাবিরোধী ঘটনাগুলো ঘটেছে সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়া, আফগানিস্তান, মালি, নাইজেরিয়া, গাম্বিয়া, আইভরি কোস্ট ও কঙ্গোর মতো দেশগুলোতে। পরবর্তী সময়ে ওই দেশগুলো থেকে অনেক মানবতা লঙ্ঘনকারী জার্মানিতে এসে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থী হয়েছেন। তবে জার্মানিতে এসব মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দোষী ব্যক্তিদের আশ্রয় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আইনজীবী ফোরামের পরিচালক সোভেন রেবেন।