স্ক্রিন থেকে খেলার মাঠ, কঠিন সময়ে পাশে তারকারা

shahrukh khan
ID 171273176 © Noursaid Gamal | Dreamstime.com

করোনার মতো ভয়ঙ্কর সময়ে বিশ্বজুড়ে বিপদে পরেছেন বহু মানুষ। কাজ হারানোর ফলে অর্থকষ্টে ভুগছে দরিদ্র শ্রেণীর মানুষরা। বিশ্বের উন্নয়নশীল অর্থনীতির দেশগুলির চিত্রটা আরও ভয়াবহ। এই সমস্ত মানুষদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন সমগ্র সেলেব দুনিয়া।

বলিউড কিং শাহরুখ খান সাধারন  মানুষের পাশে দাঁড়ালেন বাদশার মতোই । তাঁর  কোম্পানি kkR,রেড চিলিজ,মীর ফাউন্ডেশনে, রেড চিলিজ VFX এর তরফ থেকে সবরকম সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।তাঁর স্ত্রী গৌরী খান ,জুহি  চাওলা এবং জয় মেহতা IPL ফ্রাঞ্চাইজি KKR এর তরফ থেকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ফান্ডে ও শাহরুখ খান অর্থ দান করেছে। রেড চিলিজ এর তরফ থেকে মহারাষ্ট্র সরকারকে সাহায্যের  হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মীর ফাউন্ডেশনে এর তরফ থেকে ৫০,০০০ পার্সোনাল প্রটেকশান এলিমেন্ট (PPE)দেওয়া হয়েছে। ৫৫০০টি পরিবারের একমাসের খাবারের দায়িত্ব নিয়েছে কিং খান।১০০০০টিপথ শিশুর দায়িত্ব নিয়েছে তাঁর NGo। মীর ফাউন্ডেশন এর সাথেও যুক্ত হয়েছে।

বলিউড  খিলাড়ি অক্ষয় কুমার ভারতের এই ভয়ংকর পরিস্থিতিতে  দেশবাসীর পাশে দাঁড়ালেন । প্রধানমন্ত্রী ফান্ডে পঁচিশ কোটি টাকা দিলেন দেশবাসীর কাছে তাঁর একান্ত অনুরোধ ঘরে থাকার সুস্থ থাকার। সালমান খান  মানুষের পাশে থাকে সারাবছরই।ভাইজান  দশ হাজার টেকনিশিয়ান এর দায়িত্ব ভারতের এই পরিস্থিতিতে নিয়েছেন । লতা মঙ্গেশকর   ভারতের এই পরিস্থিতিতে পঁচিশ লাখ টাকা সাহায্য করছেন প্রধানমন্ত্রী ফান্ডে।

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায়  BCCI এর অবদান চোখে পড়ার মতো। BCCI এর অধিভুক্ত রাজ্য সমিতিগুলি ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে জরুরি অবস্থা তহবিলে নাগরিকতা সহায়তের জন্য ৫১ কোটি টাকা অবদান রাখবে।BCCI এর প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী নিজের থেকে ৫০ লাখ দান করেছে।এছাড়াও মানুষের মধ্যে চাল বিতরন করেছে লালবাবা রাইস কোম্পানি থেকে।

যুবরাজ সিং ও হরভজন সিং শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন  এ দান করেছেন।এই ফাউন্ডেশন  গরিবের মাঝে খাদ্য ও স্যানিটেশন প্যাক বিতরন করছে।এছাড়াও তাদের দানে পাঁচজনের একটি পরিবার ১৫ দিন ভালোভাবে টিকে থাকতে পারবে।হরভজন টুইটারে বলেছেন,”এই সময় সমস্ত মানবতা ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত এবং একে অপরের সাহায্য করা উচিত “।

শাকিব অল হাসান দু সপ্তাহ নিজের কোয়ারান্টাইনে ছিল।তিনি বলেছেন,”এটা খুব কঠিন সময়। “বাড়িতে বসে ক্রিকেটারদের গুরুত্বপূর্ণ কর্তব্য ফিটনেস বাড়ানোর কথা বলেছেন।স্যানিটাজার দিয়ে বারবার হাত ধুচ্ছেন,পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রেখে তিনি পরিবারের পাশাপাশি সমাজের পাশে দাড়িয়েছেন।

জুলিয়ান মুর টাইম ম্যাগাজিন অনুযায়ী পৃথিবীর অন্যতম প্রভাবশালী অভিনেত্রী।  পৃথিবীর বিপদে মানুষের সুস্থ থাকার কামনা করেছেনতিনি নিজেও ঘরবন্দি  অবস্থাতে আছেন।

বিখ্যাত হলিউড সুন্দরী জুলিয়া রর্বাট  বলেছেন পৃথিবী আবার আমাদের সুযোগ দিয়েছে। গ্যাল গ্যাডোট টুইট করেছেন, “বাড়িতে থেকে নিজেকে সুপার পাওয়ার গড়ে তুলুন”।বাড়িতে থেকে বই পড়ার গান শোনার পরিবারের লোকের সাথে  সময় কাটানোর পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

বিখ্যাত মডেল  বেলা হ্যাডিড পৃথিবীর  এই বিপর্যয়ের দিনে পৃথিবীকে সাহায্যের কথা বলেছেন বাড়িতে থেকে। তিনি লিখেছেন  শপিং ,বেড়ানো আপাতত বন্ধ রাখুন।একে অপরকে বাঁচতে সাহায্যে করুন।

জনপ্রিয় অভিনেত্রী গায়িকা লেডি গাগা কোভিড-19 এর মতো মহামারীর  কাছে হেরে না যাওয়ার পরার্মশ দিয়েছেন। পরিবারের পাশে থাকার ও সু্স্থ থাকার কামনা করেছেন তিনি।

রজার ফেডেরার এবং তাঁর স্ত্রী সুইজারল্যান্ড  সরকারের পাশে দাড়িয়েছেন করোনা মোকাবিলায় ।প্রায় ১ মিলিয়ান ফ্রাঙ্ক  দিয়েছেন এবং  এই পরিস্থিতিতে বাড়িতে থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন।

ফুটবলের  যুবরাজ লিওনেল মেসি  ১ মিলিয়ান ডলার দিয়ে বার্সেলোনার  চিকিৎসা কেন্দ্রগুলিকে সাহায্য করেছেন। তিনি তাঁর NGO গুলি থেকে পৃথিবীর  অন্যান্য দেশগুলিকে সাহায্যে করছেন।

ব্রজিল তারকা নেইমার ১ মিলিয়ান ডলার দিয়ে ব্রাজিল এর সাধারন মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।করোনা পরিস্থিতি  মোকাবিলায় মানুষের পাশে থাকার সংকল্প নিয়েছেন।