হাতের নখ ভাল রাখার অন্যতম উপায় ময়েশ্চারাইজার

স্টাইল ২৪ ফেব্রু. ২০২১ Contributor
ফিচার
হাতের নখ
Photo by Polina Tankilevitch from Pexels

হাতের নখ বড় করার বহুদিনের শখ আসিফার। কিন্তু নখ হালকা বড় করতে শুরু করলেই নখ ভেঙে যেতে শুরু করে তার! ফলে বড় নখে সুন্দর করে নেলপালিশ পরবে ভাবলেও সে স্বপ্ন এখনও অধুরা আসিফার। এমনিতে নখ নিয়ে আমাদের চিন্তার শেষ থাকে না। হাতের নখ কীভাবে বড় করবেন, কী করলে তা ভেঙে যাবে না, দেখতে ভাল লাগবে, নখে কী রংয়ের বাহারি নেলপালিশ পরবেন বা নেল আর্ট করবেন, এই নিয়ে হাজার পরিকল্পনা মাথায় থাকলেও বেশিরভাগ সময়েই সে সমস্ত করা হয়ে ওঠে না। কারওর বা নখ সামান্য বড় হলেও অভ্যেসবশত হাত চলে যায় মুখে, আবার কারওর নখ দেখতে সুন্দর নয় বলে নেলপালিশ পরলেও দেখতে ভাল লাগে না। তাই হাতের নখ-কে কীভাবে ভাল রাখবেন ও মজবুত করে তুলবেন এই প্রশ্ন আপনাদের অনেকেরই মনে থাকে। আজকে সেগুলি নিয়ে আমরা আলোচনা করব।

নিয়ম করে হাতের নখ কাটুন

অনেকে নিজের নখের ভাল করে যত্ন না নিয়েই নখ বড় করতে শুরু করেন। ফলে দেখা যায়, খানিক বড় হওয়ার পর থেকেই ভেঙে যেতে শুরু করে সেটি। এরকম নখ দেখতেও বাজে লাগে, তাছাড়া নখ আচমকা ভেঙে গেলে ব্যথা করে। তাই নিয়ম করে নখ কাটতে ভুলবেন না। যারা শখ করে নখ বড় করতে চান, তাঁরা নখের ভাল করে যত্ন নিন। কাজ করতে গেলে অনেকসময় হাতের নখ ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে, তাই সাবধানে কাজ করুন। এছাড়া বড় নখে খাবার বা ময়লা জমে থাকার সম্ভাবনা থাকে। সেটি দেখতে যেমন খারাপ লাগে, তেমনই নখে ময়লা জমে থাকা স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেও খারাপ। সেক্ষেত্রে খাবার আগে বা কোনও কাজ করার পর নখ ভাল করে পরিষ্কার করে নিন। সাধারণত স্নান করার পর নখ নরম থাকে বলে তখনই নখ কেটে নেওয়া ভাল। নখ কাটার পর নখে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন, এতে নখ ভাল থাকে।

হাতের নখে কেমন নেলপালিশ ব্যবহার করবেন?

নখের জন্য কেমন নেলপালিশ প্রয়োজন, সেটি অনেকেই বুঝতে পারেন না। উলটে সস্তার নেলপালিশ কিনে নখে লাগিয়ে নখের ক্ষতিই করে ফেলেন অজান্তে। নেলপালিশে থাকা ফরম্যালডিহাইড এবং ডাইবিউটাইল থ্যালেট নখকে দুর্বল করে দেয়। এছাড়া এতে থাকা প্যারাবেন এবং সালফেট যৌগ নখ ও তার পার্শ্ববর্তী ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। ফলে এইসমস্ত রাসায়নিক যুক্ত নেলপালিশ ব্যবহার না করাই ভাল। সেক্ষেত্রে কেনার আগে ভাল করে দেখে নিন। এছাড়া দীর্ঘদিন ধরে নখে ডিপ রং লাগালে নখ হলদেটে হয়ে যেতে পারে, যেটি দেখতে বাজে লাগে। নেলপালিশ তুলতে চাইলে অ্যাসিটোন ছাড়া কোনও রিমুভার ব্যবহার করুন। কারণ নেলপালিশ রিমুভারে থাকা অ্যাসিটোন আপনার নখকে ড্রাই করে দেয়।

ভাল খাবার খান

নখকে কিন্তু কেবলমাত্র বাইরে থেকে ভাল রাখলে চলবে না। মজবুত ও সুন্দর নখের জন্য পুষ্টিকর খাওয়াদাওয়া করা অত্যন্ত জরুরি। নখে থাকে কেরাটিন নামে প্রোটিন, যা নখের গঠনে সাহায্য করে। এই কেরাটিনের যোগান রাখার জন্য খাদ্যতালিকায় বেশি করে মাছ, বাদাম, সয়াবিন, বিনসজাতীয় খাবার রাখুন। ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডযুক্ত সামুদ্রিক মাছ খেতে পারেন। এছাড়া নখ ভাল রাখতে ভিটামিন এ, বি, সি, জিঙ্ক, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন যুক্ত খাবার, যেমন

ডালজাতীয় শস্য, ডিম, সবজি, ফল ইত্যাদি খান। ভিটামিন বি নখকে শক্তিশালী করে তোলে এবং ভিটামিন এ ও সি নখকে হাইড্রেটেড, চকচকে করে।

নখকে ময়েশ্চারাইজড রাখুন

অনেকেই হাতে নিয়ম করে ময়েশ্চারাইজার লাগান, কিন্তু নখেরও যে ময়েশ্চারাইজার প্রয়োজন, একথা জানেন না অনেকেই। মনে রাখবেন নখকে হাইড্রেটেড না রাখলে নখ খসখসে হয়ে যেতে পারে, দেখতেও বাজে লাগে। এক্ষেত্রে শুতে যাওয়ার আগে নখে নিয়ম করে অ্যাভোকাডো বা আমন্ড অয়েল লাগাতে পারেন। এগুলি যদি আপনার বাড়িতে না থাকে, তাহলে অনায়াসে লিপবাম বা ভেসলিন জাতীয় কিছুও লাগাতে পারেন। নারকেল তেল, অলিভ অয়েলও এক্ষেত্রে দারুণ কার্যকরী। এছাড়া আজকাল শুধুমাত্র নখকে ভাল রাখার জন্য বিশেষ কিছু তেল বেরিয়েছে, সেগুলিও কিনে লাগিয়ে দেখতে পারেন।

এড়িয়ে চলুন

নখ ভাল রাখার জন্য নিয়ম করে নখের যত্ন নেওয়া যেমন জরুরি, তেমনই জরুরি বেশ কিছু জিনিস এড়িয়ে চলা। মনে রাখবেন, নখকে বেশিক্ষণ ভিজে বা শুকনো রাখলে নখের তলায় বা কোণে জীবাণু জন্মাতে পারে। এর ফলে নখে ইনফেকশন হতে পারে। ঘরের কাজ করতে গিয়ে আপনাকে যদি বেশি জল ঘাঁটতে হয় বা বাগানে কাজ করতে হয়, তাহলে হাতে গ্লাভস পরে কাজ করুন। নখ ভাল থাকবে। এছাড়া টেনশনে অনেকেরই নিজেদের অজান্তেই মুখে নখ চলে যায়। নখ কামড়ানোর অভ্যেস কিন্তু খুব খারাপ।

এর ফলে নখ দেখতে যেমন বাজে হয়ে যায়, তেমনই নখের মাধ্যমে যে-কোনও জীবাণু আপনার শরীরে প্রবেশ করতে পারে, তাছাড়া নখ কামড়ানোর অভ্যেস নখকে ভঙ্গুর করে দেয়। এই অভ্যেসটি এবার ত্যাগ করুন। আর চেষ্টা করেও যদি ছাড়াতে না পারেন, তাহলে নখে এমন কোনও জেল লাগিয়ে রাখুন, যেটি বাজে খেতে। দেখবেন, নখ খাওয়ার অভ্যেস চলে গিয়েছে। অনেকেই নখ যাতে ভাল দেখায়, সেজন্য কিউটিকল কেটে ফেলেন। কিউটিকল কিন্তু নখকে রক্ষা করে। ফলে এটি কেটে ফেললে ক্ষতিকর জীবাণুর শরীরে প্রবেশের সম্ভাবনা যেমন বৃদ্ধি পায়, তেমনই নখে ইনফেকশনও বাড়তে পারে।

এছাড়া নখ যাতে ভাল থাকে, এজন্য অনেকেই নখের উপর কোনও একটি বেস কোট ব্যবহার করে থাকেন, এর উপর নেলপলিশ লাগান। এই বেস কোট নখকে হলদেটে হয়ে যাওয়ার থেকে রক্ষা করে। তাহলে এবার নখ ভাল রাখা নিয়ে চিন্তা বন্ধ করুন, নখের যত্ন নিন, দেখবেন আপনিও দ্রুত সুন্দর নখের অধিকারী হয়ে উঠবেন।