SalamWebToday নিউজলেটার
Sign up to get weekly SalamWebToday articles!
আমরা দুঃখিত কোনো কারণে ত্রুটি দেখা গিয়েছে:
সম্মতি জানানোর অর্থ, আপনি Salamweb-এর শর্তাবলী এবং গোপনীয়তার নীতি মেনে নিচ্ছেন
নিউজলেটার শিল্প

হিজাবের নীচে নির্জীব চুল? রইল যত্ন নেওয়ার কিছু টিপস!

স্টাইল ১৮ ফেব্রু. ২০২১
ফিচার
হিজাবের নীচে নির্জীব চুল
Photo by Ekrulila from Pexels

আদর্শ ও সহি মুসলমান রমণী মানেই হিজাব তাঁর বেশবাসের অন্যতম অংশ। হিজাব শব্দটি আরবি শব্দ ‘হাজাবা’ থেকে উদ্গত, এর অর্থ আবরণ। একজন মুসলমান মহিলা যখন হিজাব পরিধান করেন, তখন তিনি আল্লাহর আনুগত্য স্বীকার করেন। পবিত্র কুরআনে এই বিষয়ে জানা যায়,

“হে নবী, তুমি তোমার স্ত্রীদেরকে, তোমার কন্যাদের, আর মোমিনদের নারীদেরও বলে দাও – তারা যেন তাদের চাদরের কিছু অংশ নিজেদের উপর টেনে দেয়, এতে তাদেরকে চেনা সহজতর হবে এবং তাদেরকে উত্যক্ত করা হবে না। আল্লাহ অতি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।”[কুরআন, ৩৩:৫৯]

কিন্তু সারাদিন হিজাব পরে থাকার উপকারের সঙ্গে সঙ্গে কিছু অসুবিধাও রয়েছে। আর এই অসুবিধা সর্বাপেক্ষা প্রভাব পড়ে আমাদের চুলের উপর। একরাশ মেঘের মতো ঘন কালো চুল আমাদের সকলেরই স্বপ্ন, কিন্তু হিজাবের কাপড়ের সঙ্গে ঘষা লেগে অনেকসময়ই চুল হয়ে যায় রুক্ষ। এছাড়া চুলের ডগা ফাটা ও খুশকির সমস্যাও দেখা যায়। তাই প্রাত্যহিক জীবনের অন্যান্য কাজের সঙ্গে সঙ্গে চুলে যত্ন নেওয়াও বাঞ্ছনীয়।

সেইকারণেই, আমাদের পাঠিকাদের জন্য রইল চটজলদি হেয়ার কেয়ারের কিছু টিপস-

১। চিরুনি বা ব্রাশের সঠিক ব্যবহার

আমাদের চুল ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার পিছনে বেশিরভাগ সময়ই আমাদের গাফিলতি থাকে। আমরা আমাদের চুলের গঠন বা বুঝে চিরুনি বা ব্রাশ ব্যবহার করি। খুব পাতলা চুলে বড় দাঁড়ার চিরুনি চলে না। সেরকম ঘন চুলে সরু দাঁড়ার চিরুনি ব্যবহার করলে চুল ছিঁড়ে যাবে। তাই শুরুতেই নিজের চুলের গঠন ও টেক্সচার বুঝে চিরুনি বা ব্রাশ কিনুন। ফলে, জট ছাড়ানোর সময় চুল ছিঁড়ে যাওয়ার সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন।

২। ভিজে চুল আঁচড়ানো? এক্কেবারে নয়!

সকালের স্নান সেরেই স্বামী ও সন্তানের জন্য নাস্তা বানাতে ছুটলেন, রান্নায় চুল পড়বে বলে কোনওরকম চুলটা আঁচড়ে নিলেন। অফিস বেরবেন, হিজাব পরার আগেই ভিজা চুলেই চিরুনি বুলিয়ে নিলেন তাড়াহুড়োয়। এগুলো বন্ধ করুন। ভিজে অবস্থায় চুলের গোড়া ও ফলিকল অত্যন্ত দুর্বল থাকে। আঁচড়ানোর সময় তাই বেশি চুল পড়ে বা ছিঁড়ে যায়। স্নান করে অন্তত এক ঘণ্টা পরে চুলে চিরুন দিন। দেখবেন, চুল অনেক কম পড়ছে।

৩। ভিজে চুলে হিজাব পরবেন না

সকালের দিকে তাড়া থাকলেই আমরা বেশিরভাগ এটা করি। এটা কিন্তু একেবারে বন্ধ করতে হবে। ভিজে চুলে হিজাব পরলে প্রথমেই যে সমস্যা হবে তা হল স্ক্যাল্পে ইচিং বা র‍্যাশ। এছাড়া ভিজে চুল থেকে সর্দি লেগে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া ভিজে চুল অনেকক্ষণ বাঁধা ও ঢাকা অবস্থায় থাকলে অবশ্যম্ভাবী মাথায় বিশ্রী গন্ধ ও খুশকির সমস্যা দেখা যায়। যদি আপনার সকালে জলদি কোথাও বেরোনোর থাকে, তাহলে আগের রাতে গোসল করে নিন। সারারাত ধরে আপনার চুল শুকিয়ে যাবে, ফলে সকালে আর সমস্যা থাকবে না।

৪। মলিন বিবর্ণ ও পাতলা হয়ে যাওয়া চুলের যত্ন নিন

বহুদিন ধরে হিজাব পরার দরুন অনেকেরই চুল পাতলা ও মলিন হয়ে যায়। এর সঙ্গে যুক্ত হয় রুক্ষতা ও চুল পড়া। যেহেতু হিজাব খুব দৃঢ় ভাবে বাঁধা থাকে, তাই চুলের উপর খানিক চাপ পড়ে। এর থেকে রক্ষা পাওয়ার সেরা উপায় হল নিয়মিত চুল আঁচড়ে বিনুনি বা খোঁপা করে তারপর হিজাব পরা। এছাড়া, নিয়মিয় সিঁথি পালটালেও অনেকসময় এর থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। কখনও চুল খোলা রেখে হিজাব পরবেন না।

৫। শুষ্ক রুক্ষ চুলের যত্ন

রুক্ষ চুল মানে আপনার চুলে ময়শ্চারাইজারের প্রয়োজন। হিজাব পরার আগে চুলে সিরাম বা হেয়ার ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুন। কয়েক মিনিট রেখে তারপর হিজাবের স্কার্ফটি পরিধান করুন। এছাড়া, নিয়মিয় চুলে নারকেল তেল ও অ্যালোভেরা মিশিয়ে মালিশ করলে এই রুক্ষতা অনেকটাই কমে যাবে। মনে রাখবেন, রুক্ষ চুল মানে কিন্তু হেয়ার ড্রায়ার আর হেয়ার আয়রন থেকে শতহস্ত দূরে থাকাই বাঞ্ছনীয়।

৬। ভরসা থাকুক বাড়ির হেয়ার স্পা-তে

ছুটির দিন বাড়িতে বসেই সেরে নিতে পারেন হেয়ার স্পা। সুন্দর করে চুলে নারকেল তেল ম্যাসাজ করে, হালকা গরম জল আর বেবি শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে পারেন। এরপর ঘরোয়া হেয়ার মাস্ক লাগালেই আপনার চুল ফুরফুরে ও নরম। ঘরোয়া মাস্কের মধ্যে ডিম ও নারকেল তেলের মিশ্রণ, দুধ ও মধুর মিশ্রণ ও অ্যালোভেরা ও শিয়া বাটারের মিশ্রণ খুবই কার্যকরী। চুল পড়া, রুক্ষতা, খুশকি ইত্যাদি নিমেষে গায়েব করে দিতে পারে এই হেয়ার স্পা।

আরব্য রজনীর শাহজাদীর চুল ছিল ঈর্ষনীয়, কিন্তু বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে এই যত্নগুলো করলে আপনার চুল তার থেকে বেশি সুন্দর বই কম হবে না।